আক্রান্ত
২১০৯২
সুস্থ
১৬৪৭৩
মৃত্যু
৩০২

চট্টগ্রাম ওয়াসার এমডির বিরুদ্ধে দুদকের পদক্ষেপ কী জানতে চান হাইকোর্ট

0

চট্টগ্রাম ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) প্রকৌশলী এ কে এম ফজলুল্লাহর বিরুদ্ধে অনিয়ম-দুর্নীতি ও স্বজনপ্রীতির অনুসন্ধান চেয়ে করা অভিযোগের বিষয়ে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) কী পদক্ষেপ নিয়েছে- তা জানতে চেয়েছেন হাইকোর্ট। দুদকের আইনজীবীকে এ বিষয়ে জানাতে বলা হয়েছে।

দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) চট্টগ্রাম বিভাগীয় পরিচালক বরাবর ১১ সেপ্টেম্বর অভিযোগ করেন চট্টগ্রামের বাসিন্দা হাসান আলী।

চট্টগ্রাম ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালকের বিরুদ্ধে গণমাধ্যমে আসা অভিযোগ অনুসন্ধানের নির্দেশনা চেয়ে করা এক রিটের শুনানিতে বুধবার (২৩ সেপ্টেম্বর) বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ পদক্ষেপ জানাতে বলেন।

অভিযোগ দাখিলের পর ফল না পেয়ে ২০ সেপ্টেম্বর রিটটি করেন চট্টগ্রামের বাসিন্দা হাসান আলী। আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী মো. ইকরাম উদ্দিন খান চৌধুরী। দুদকের পক্ষে শুনানিতে ছিলেন আইনজীবী মো. নওশের আলী মোল্লা। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মো. সারওয়ার হোসেন।

পরে আইনজীবী ইকরাম উদ্দিন খান চৌধুরী বলেন, রিট আবেদনকারীর করা অভিযোগের বিষয়ে দুদক কী পদক্ষেপ নিয়েছে, তা দুদকের আইনজীবীকে জানাতে বলেছেন আদালত। রিটের শুনানি এক মাসের জন্য মুলতবি রাখা হয়েছে। সন্ধ্যায় দুদকের আইনজীবী মো. নওশের আলী মোল্লা বলেন, আদালতের মৌখিক আদেশ জানিয়ে ইতিমধ্যে একটি চিঠি দুদকের প্রধান কার্যালয়ে পাঠানো হয়েছে।

রিট আবেদনে চট্টগ্রাম ওয়াসার বিষয়ে বিভিন্ন সময়ে পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদ যুক্ত করা হয়।

রিট আবেদনে বিবাদী করা হয়েছে, এলজিআরডি সচিব, জনপ্রশাসন সচিব, চট্টগ্রাম ওয়াসা, চট্টগ্রাম ওয়াসা বোর্ড, চট্টগ্রাম ওয়াসার এমডি প্রকৌশলী এ কে এম ফজলুল্লাহ, দুর্নীতি দমন কমিশন এবং দুর্নীতি দমন কমিশনের বিভাগীয় পরিচালককে।

রিট আবেদনে একেএম ফজলুল্লাহর বিরুদ্ধে অভিযোগের বিষয়ে কোনো পদক্ষেপ না নেয়ায় দুদকের নিষ্ক্রিয়তা এবং পুনরায় নিয়োগের ওয়াসা বোর্ডের সিদ্ধান্ত চ্যালেঞ্জ করে এ রিট আবেদন করা হয়।

এমএহক

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

ManaratResponsive

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন
ksrm