s alam cement
আক্রান্ত
৫৪৮০৭
সুস্থ
৪৬১৯১
মৃত্যু
৬৪২

চট্টগ্রামে হাজার পণ্যের নিলাম, পাবেন সর্বোচ্চ দরদাতারাই

0

পলেস্টার ফেব্রিক, টি-শার্ট, জিপার, সোয়েটার, জ্যাকেট ও গার্মেন্টস মেশিনসহ ৮৯ লট পণ্যের নিলামে ১০৯টি দরপত্র (ফরম) জমা পড়েছে চট্টগ্রাম কাস্টমসে।

মঙ্গলবার (২৫ মে) দুপুর তিনটায় ঢাকা ও চট্টগ্রামে একযোগে এই নিলাম অনুষ্ঠিত হয়। গত বৃহস্পতিবার থেকে নিলামের ক্যাটালগ ও দরপত্র বিক্রি শুরু হয়।

যেখানে যে অবস্থায় আছে সে ভিত্তিতে এবং শর্তযুক্ত পণ্যের ক্ষেত্রে শর্ত প্রতিপালন (রিট মামলা নিষ্পত্তিসহ) সাপেক্ষে নিলামে এসব পণ্য বিক্রি হবে। এছাড়া ফেরো সিলিকন, মেশিনারিসহ স্ক্র্যাপ, কেমিক্যাল, কম্বলের কাপড়, ফার্নিচার, নির্মাণসামগ্রী, মেশিনারি, এলইডি টিউবলাইট, স্টোন টাইলস, এলপিজি গ্যাসের খালি সিলিন্ডার, ক্যালেন্ডার ও ডায়েরি, এমডিএফ বোর্ড, ইলেকট্রিক কেটলি, কালার লেজার প্রিন্টার ও স্ক্যানার, ইলেকট্রিক মিটার, কসমেটিকস, পিভিসি ফ্লোর ম্যাট, ফুটওয়্যার লেদার, হ্যাঙ্গার ইত্যাদির পণ্যও রয়েছে আলাদা আলাদা লটে।

সরকারি নিলাম পরিচালনাকারী প্রতিষ্ঠান মেসার্স কেএম কর্পোরেশনের কর্মকর্তারা জানান, অফিস চলাকালীন চট্টগ্রামের মাঝিরঘাটের কেএম কর্পোরেশন অফিস থেকে চট্টগ্রাম কাস্টমস হাউসের নিলাম শাখায় ও ঢাকার কাকরাইলে অবস্থিত শুল্ক আবগারি ও ভ্যাট কমিশনারেটের যুগ্ম-কমিশনার (সদর) এর দপ্তর থেকে নির্ধারিত মূল্য পরিশোধ করে ক্যাটালগ ও দরপত্র বিক্রি করা হয় নিলামের আগে।

কেএম কর্পোরেশনের ম্যানেজার মুরশেদ আলম বলেন, নিলামে আগের দিন মঙ্গলবার ২টা পর্যন্ত দরপত্র জমা নেওয়া হয়। এর ৩০ মিনিট পর দুপুর আড়াইটায় নিলাম কার্যক্রম শুরু হয়।

তিনি আরও জানান, নিলামে অংশগ্রহণ করতে প্রতিষ্ঠানের ক্ষেত্রে দরপত্রের সঙ্গে হালনাগাদ করা ট্রেড লাইসেন্স, ভ্যাট রেজিস্ট্রেশন সনদ, টিন সার্টিফিকেটের কপি দাখিল করতে হয়। এছাড়া ব্যক্তির ক্ষেত্রে জাতীয় পরিচয়পত্রের কপি এবং হালনাগাদ টিন সার্টিফিকেটের কপি অবশ্যই দাখিল করতে হয়। এছাড়া ক্যাটালগে বর্ণিত নিলাম সংক্রান্ত সকল শর্তাদি যথাযথভাবে পালন করেই যে কেউ নিলামে অংশ নিতে পারে।

Din Mohammed Convention Hall

কাস্টমস নিলাম শাখার ডেপুটি কমিশনার আল আমিন বলেন, এবার ৮৯টি লটের নিলামের আয়োজন করেছে কাস্টমস হাউস। এর মধ্যে ১০৯টি দরপত্র পড়েছে।

তিনি জানান, চট্টগ্রাম কাস্টম হাউসের রাজস্ব কর্মকর্তা (প্রশাসন) এর দপ্তরে ও চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসকের দপ্তর মিলে ১০৭টি এবং ঢাকার কাকরাইলে অবস্থিত শুল্ক আবগারি ও ভ্যাট কমিশনারেটের যুগ্ম-কমিশনার (সদর) এর দপ্তরে ২টি দরপত্র জমা পড়েছে। সব দরপত্র যাচাই বাছাই করে যে বা যিনি সর্বোচ্চ দরপত্র দিয়েছেন তাকে পণ্য বুঝে নেওয়ার জন্য চিঠি দেওয়া হবে। তবে এ কার্যক্রম শেষ করতে আরও দুদিন লাগতে পারে।

এএস/এসএ/সিপি

ManaratResponsive

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm