চট্টগ্রামে হচ্ছে পূর্ণাঙ্গ ক্রীড়া কমপ্লেক্স, ৬ ইনডোর মাঠ ছাড়াও থাকছে ৫ ক্রিকেট মাঠ

প্রায় ১৬ একর জায়গাজুড়ে চট্টগ্রামের হাটহাজারীতে তৈরি হচ্ছে পূর্ণাঙ্গ ক্রীড়া কমপ্লেক্স। কমপ্লেক্সটিতে ফুটবল খেলার একটি মাঠ, পিচসহ পাঁচটি ক্রিকেট মাঠ তৈরি করা হবে। এছাড়া থাকছে ছয়টি ইনডোর মাঠ।

চট্টগ্রামের তরুণদের মধ্যে খেলাধুলায় আগ্রহ বাড়ানো ও তাদের প্রশিক্ষিত করে গড়ে তুলতে হাটহাজারীর পশ্চিম দেওয়াননগর মধ্যেরখিল এলাকায় সবুজ পাহাড়ের কোলে বিশাল জায়গাজুড়ে কমপ্লেক্সটি গড়ে তুলছে কন্টিনেন্টাল গ্রুপ।

গত এক দশকে জেলা ও মহানগর এমনকি থানা শহরেও ক্রিকেট কোচিং একাডেমি গড়ে উঠেছে। তবে বেশিরভাগ কোচিং সেন্টারেই নেই অবকাঠামোগত সুযোগ-সুবিধা। উইকেট (পিচ) থাকে না। খেলা হয় মাটি সমান করে। খোলা মাঠে এমনকি নেটও লাগানো থাকে না। বৃষ্টি হলেই বন্ধ হয়ে যায় প্র্যাকটিস। বেশিরভাগ কোচই নেশা থেকে ক্রিকেট শেখান। এমন সব কারণে পরিপূর্ণ ও মানসম্মত ক্রীড়া প্রশিক্ষণের অভাব রয়েই গেছে চট্টগ্রামে।

মূলত এসব সীমাবদ্ধতা থেকে বের হয়ে আসতে একটি পূর্ণাঙ্গ ও আধুনিক অবকাঠামোগত সুযোগ সুবিধার স্পোর্টস কমপ্লেক্স গড়ে তোলার উদ্যোগ নিয়েছে কন্টিনেন্টাল গ্রুপ।

শুক্রবার (২১ অক্টোবর) দুপুরে কন্টিনেন্টাল স্পোর্টস কমপ্লেক্স লিমিটেডর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম-৫ আসনের সংসদ সদস্য আনিসুল ইসলাম মাহমুদ।

তিনি বলেন, ‘শুধু সরকার ক্রীড়ার উন্নয়ন করবে এমন নয়— ব্যক্তি উদ্যোগে এভাবে এগিয়ে আসতে হবে। আমি এই উদ্যোগকে শতভাগ সমর্থন করি। আমি কথা দিচ্ছি তারা (কন্টিনেন্টাল গ্রুপ) যদি আমাকে প্রপার প্লান দেয়, তাহলে এই তিন কিলোমিটারের রাস্তাটা (কমপ্লেক্স সংযোগ সড়ক) করে দেওয়ার চেষ্টা করব।’

Yakub Group

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগ ও জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছির উদ্দিন বলেন, ‘আমরা নতুন প্রজন্মের মাঝে যেভাবে নীতি-নৈতিকতার অবক্ষয় দেখতে পাচ্ছি, সেটা থেকে তাদেরকে বাঁচাতে খেলাধুলার বিকল্প নেই। খেলাধুলা প্রচার এবং প্রসার করার করার জন্য কন্টিনেন্টাল গ্রুপ পরিকল্পিতভাবে কমপ্লেক্স করার উদ্যোগ নিয়েছেন।’

ক্রীড়া কমপ্লেক্সের উদ্যোক্তা কন্টিনেন্টাল গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আহসান ইকবাল চৌধুরী বলেন, ‘চট্টগ্রামের তরুণরা জায়গার অভাবে সঠিক প্রশিক্ষণ নিতে পারে না। নেই ভালো মানের কোনো প্রশিক্ষণ একাডেমিও। চট্টগ্রামের সন্তানরা দেশের বিভিন্ন এলাকায় গিয়ে প্রশিক্ষণ নিয়ে থাকে। আর সেই ভাবনা থেকেই স্পোর্টস কমপ্লেক্স গড়ে তোলার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। এখানে ১৬ একর জায়গায় হবে একটি ফুটবল খেলার মাঠ, পিচসহ পাঁচটি ক্রিকেট মাঠ। এছাড়া ছয়টি ইনডোর মাঠ।’

তিনি বলেন, ‘বিশ্বমানের স্পোর্টস কমপ্লেক্সে যা যা থাকা দরকার তা রাখার চেষ্টা আমাদের থাকবে। আমাদের মূল ফোকাস থাকবে ক্রিকেট এবং ফুটবলের ওপর। প্রশিক্ষণ ও ম্যাচ আয়োজনের জন্য থাকবে ইনডোর ও আউটডোর ফ্যাসিলিটিজ। বিসিবি, বাফুফে, সিজেকেএস চাইলে এখানে তৈরি হতে যাওয়া সুবিধাসমূহ ব্যবহার করতে পারবে।’

ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন কন্টিনেন্টাল গ্রুপের পরিচালক আদিব ইকবাল চৌধুরী ও আলিফ ইকবাল চৌধুরীসহ ক্রীড়া সংগঠনের নেতা ও চট্টগ্রামের বিভিন্ন এলাকার খেলোয়াড়রা।

আরএম/সিপি

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

ksrm