চট্টগ্রামে সিটি কর্পোরেশন ওয়ার্ডের জন্ম নিবন্ধন আইডি হ্যাক, চক্রের ৪ সদস্য গ্রেপ্তার

জাল জন্ম নিবন্ধন তৈরি চক্রের চার সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে। এই পর্যন্ত চক্রটি কয়েকটি ওয়ার্ডের আইডি হ্যাক করে পাঁচ হাজারের বেশি ভুয়া জন্ম সনদ তৈরি করে বলে জানায় পুলিশ।

মঙ্গলবার (২৪ জানুয়ারি) সংবাদ সম্মেলন করে এসব তথ্য জানান চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম বিভাগের উপ পুলিশ কমিশনার (ডিসি) ড. মঞ্জুর মোর্শেদ।

গ্রেপ্তার আসামিরা হলেন মো. জহির আলম (১৬), মোস্তাকিম (২২), দেলোয়ার হোসাইন সাইমন (২৩) ও মো. আব্দুর রহমান আরিফ (৩৫)।

সোমবার (২৩ জানুয়ারি) নগরীর বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম বিভাগের সদস্যরা তাদের গ্রেপ্তার করে। এই সময় তাদের কাছ থেকে সনদ জালিয়াতিতে ব্যবহৃত চারটি সিপিইউ, তিনটি মনিটর, একটি স্ক্যানারসহ প্রিন্টার ও দুটি প্রিন্টার এবং চারটি মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়।

ড. মঞ্জুর মোর্শেদ বলেন, ‘দীর্ঘদিন ধরে একাধিক গ্রুপ সনদ জালিয়াতির এই কাজ চালিয়ে আসছে। এই ধরনের চক্রের সদস্য ৩০ থেকে ১০০ জন পর্যন্ত। তারা প্রতিটি ভুয়া জন্ম নিবন্ধন সনদ করতে ৫০০ থেকে ৮০০ টাকা নেয়। পরবর্তীতে সরকারের নির্ধারিত ওয়েবসাইটে ভুয়া ঠিকানা ব্যবহার করে প্রাথমিক নিবন্ধন করে এবং ওই তথ্য হ্যাকারকে দিয়ে দেয়। হ্যাকাররা জন্মনিবন্ধন সার্ভারে গিয়ে জাল সনদ তৈরি করে পরে এই চক্রের সদস্যদের কাছে পাঠায়।’

তিনি আরও বলেন, ‘জন্ম নিবন্ধন সনদ জালিয়াতি চক্রের চার সদস্যকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এই সময় তাদের কাছ থেকে কার্যক্রমে ব্যবহৃত চারটি সিপিইউ, তিনটি মনিটর, একটি স্ক্যানার, দুটি প্রিন্টার এবং চারটি মোবাইল জব্দ করা হয়।’

Yakub Group

জালিয়াতি চক্রের সদস্যদের জিজ্ঞাসাবাদে জানায়, এই পর্যন্ত তারা জালিয়াতির মাধ্যমে পাঁচ হাজারের বেশি জন্মনিবন্ধন সনদ তৈরি করেছে।

গত পনেরো দিনে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের পাঁচটি ওয়ার্ডে আইডি হ্যাক করে জন্ম নিবন্ধন সনদ নেওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এসব ওয়ার্ডের আইডি হ্যাক করে ইস্যু করা হয় ৫৪৭টি জন্মনিবন্ধন সনদ। সনদ বাবদ জমা হওয়া অর্থ ও সংখ্যা যাচাই করতে গিয়ে আইডি হ্যাকড হওয়ার বিষয়টি বুঝতে পারেন সংশ্লিষ্টরা।

বিএস/ডিজে

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

ksrm