চট্টগ্রামে সাংবাদিক পেটানোর ঘটনায় সেই ইটভাটা গুঁড়িয়ে দিল প্রশাসন

চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়ায় সাংবাদিকের ওপর হামলার নির্দেশদাতা সেই চেয়ারম্যানের অবৈধ ইটভাটা গুঁড়িয়ে দিয়েছে জেলা প্রশাসন ও পরিবেশ অধিদপ্তর।

সোমবার (৯ জানুয়ারি) দুপুর সাড়ে ১২টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট প্রতীক দত্তের নেতৃত্বে রাঙ্গুনিয়া উপজেলার ইসলামপুর ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের মঘাইছড়ি এলাকায় এ অভিযান পরিচালনা করা হয়।

এসময় পরিবেশ অধিদপ্তরের চট্টগ্রাম বিভাগের সহকারী পরিচালক আফজারুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন। এছাড়াও ঘাগড়া ভূমি তহসিলদার এনামুল হক, মোঃ আকরাম ও রাঙ্গুনিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মাহবুব মিল্কিসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

একই সময় পরিবেশ অধিদপ্তরের ছাড়পত্র ও লাইসেন্স না থাকায় হাইকোর্টের নির্দেশনা উপেক্ষা করে অবৈধভাবে ইটভাটা পরিচালনা করার দায়ে ইসলামপুর ইউপির চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম চৌধুরীর মালিকানধীন একতা ব্রিকস কনসার্ন (এবিসি-১) ইটভাটার সব কার্যক্রম স্থায়ীভাবে বন্ধ করাসহ চিমনি ও কিলন ভেঙে গুঁড়িয়ে দেওয়া হয়। এ সময় প্রশাসনের নিয়ে যাওয়া যন্ত্র দিয়ে ভাটার পাশে রাখা প্রায় ১০-১৫ হাজার কাঁচা ইটও নষ্ট করা হয়।

চট্টগ্রাম পরিবেশ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক আফজারুল ইসলাম বলেন, ইটভাটা স্থাপন আইন ২০১৩ (সংশোধিত ২০১৯) এর ৪ ধারা মোতাবেক ইটভাটা স্থাপনের জন্য জেলা প্রশাসকের কাছ থেকে লাইসেন্স গ্রহণ ও পরিবেশ অধিদপ্তরের ছাড়পত্র নেওয়ার বিধান রয়েছে। কিন্তু জরিমানা করা ইটভাটাটির পরিবেশের ছাড়পত্র ও লাইসেন্স নেই। ফলে অভিযান চালিয়ে জরিমানা ৫০ হাজার টাকা করাসহ ভাটাটি ভেঙে ফেলা হয়েছে। ভবিষ্যতেও এ ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

Yakub Group

এ বিষয়ে জানতে চাইলে চট্টগ্রাম জেলা পরিষদের সহকারী কমিশনার ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট প্রতীক দত্ত বলেন, আদালতের নির্দেশে অবৈধ ইটভাটার বিরুদ্ধে চলমান অভিযান অব্যাহত থাকবে। অবৈধ ইটভাটার মালিক জনপ্রতিনিধি হোক আর প্রভাবশালীই হোক, সবগুলো অবৈধ ইটভাটা উচ্ছেদ করা হবে।

গত ২৫ ডিসেম্বর রাঙ্গুনিয়ায় ইটভাটার সংবাদ সংগ্রহ করতে গিয়ে হামলার শিকার হন ইংরেজি দৈনিক দ্য বিজনেস স্ট্যান্ডার্ড চট্টগ্রাম অফিসের স্টাফ রিপোর্টার আবু আজাদ। এ ঘটনায় হামলার শিকার সাংবাদিক আবু আজাদ বাদী হয়ে রাঙ্গুনিয়া থানায় হত্যাচেষ্টা, মারধর, টাকাপয়সা ছিনিয়ে নেওয়া, অপহরণ ও চাঁদাবাজির অভিযোগ এনে একটি মামলা দায়ের করেন। মামলায় রাঙ্গুনিয়া উপজেলার ইসলামপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সিরাজ উদ্দিন চৌধুরী (৫৫), ইউপি সদস্য মহিউদ্দিন তালুকদার মোহন (৪০), ইটভাটার ম্যানেজার কামরান (৩০), মোহনের সহযোগী কাঞ্চন তুরির (৩০) নাম উল্লেখ অজ্ঞাত আরও পাঁচ-সাত জনকে আসামি করা হয়।

এ ঘটনায় গত ২৬ ডিসেম্বর রাতে রাঙ্গুনিয়া উপজেলার রানীরহাট এলাকা থেকে আসামি কাঞ্চন তুরিকে গ্রেফতার করে রাঙ্গুনিয়া থানা পুলিশ। বাকি আসামিরা হাইকোর্ট থেকে ৪ সপ্তাহের জামিনে আছে।

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

ksrm