চট্টগ্রামে রোববার হরতাল, আমীর খসরুকে জেলে ঢোকানোর প্রতিবাদে

বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরীকে গ্রেপ্তার ও রিমাণ্ডে নেওয়ার প্রতিবাদে হরতাল ঘোষণা করেছে বিএনপি।

অবরোধের পাশাপাশি আগামীকাল রোববার (৫ নভেম্বর) চট্টগ্রামে সকাল সন্ধ্যা সর্বাত্মক হরতাল কর্মসূচি আহ্বান করেছে বিএনপি।

হরতাল শান্তিপূর্ণভাবে সফল করার জন্য চট্টগ্রাম মহানগর, উত্তর ও দক্ষিণ জেলা বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের সর্বস্তরের নেতাকর্মী এবং চট্টগ্রামবাসীর সহযোগিতা কামনা করেছেন বিএনপির নেতৃবৃন্দ।

তবে অ্যাম্বুলেন্স, সংবাদপত্রবাহী ও সাংবাদিকদের বহনকারী যানবাহন, ফায়ার সার্ভিসের গাড়ি হরতালের আওতামুক্ত থাকবে। পাশাপাশি রোববার ও সোমবার বিএনপির ডাকা দেশব্যাপী দুইদিনের অবরোধ কর্মসূচিও চলমান থাকবে।

চট্টগ্রামের সকাল সন্ধ্যা হরতাল শান্তিপূর্ণভাবে সফল করার জন্য আহবান জানিয়েছেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুল্লাহ আল নোমান, মীর মো. নাছির উদ্দীন, চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা গোলাম আকবর খন্দকার, এস এম ফজলুল হক, বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুবের রহমান শামীম, চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির আহবায়ক ডা. শাহাদাত হোসেন, সদস্য সচিব আবুল হাশেম বক্কর, চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা বিএনপির আহবায়ক আবু সুফিয়ান, সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক এনামুল হক এনাম।

নেতৃবৃন্দ বলেন, হরতাল অবরোধ জনগণের অধিকার আদায়ের গণতান্ত্রিক আন্দোলনের কর্মসূচি। বিএনপি ঘোষিত এই কর্মসূচী হচ্ছে শান্তিপূর্ণ, জনসম্পৃক্ত, সিনিয়র নেতাদের মুক্তি ও এক দফার দাবি আদায়ের। এই হরতাল, অবরোধ কর্মসূচিকে কেন্দ্র করে সরকারের পক্ষ থেকে নানামুখী অপপ্রচার চালানো হচ্ছে। তাই চট্টগ্রামবাসীকে শান্তিপূর্ণভাবে হরতাল অবরোধ কর্মসূচি পালন করার আহবান জানাচ্ছি।

আরএম

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!