চট্টগ্রামে রাস্তার পাশে স্বর্ণ ব্যবসায়ীর গলা কাটা লাশ উদ্ধার

চট্টগ্রামের পটিয়ায় এক স্বর্ণ ব্যবসায়ীকে গলা কেটে হত্যা করে লাশটি রাস্তায় পাশে ফেলে রেখে চলে গেছে খুনিরা।

নিহতের নাম বিমান ধর (৪২)। তিনি পটিয়ার ধলঘাট ইউনিয়নের বনিক পাড়ার দুলাল ধরের বড় ছেলে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার (৬ সেপ্টেম্বর) রাত সাড়ে এগারোটার দিকে বনিক পাড়ার স্বর্ণ ব্যবসায়ী বিমান ধর তার চট্টগ্রাম শহরের রাহাত্তারপুল এলাকার স্বর্ণের দোকানটি বন্ধ করে পটিয়ায় গ্রামের বাড়িতে যাওয়ার জন্য বের হন। প্রতিদিনের মতো মোটরসাইকেল চালিয়ে বাড়ি যাওয়ার পথে হাবিলাসদ্বীপ ইউনিয়নের লড়িহড়া এলাকায় রাতের আধারে খুনিরা তাকে মোটরসাইকেল থেকে নামিয়ে গলা কেটে হত্যা করে একটি ডোবার পাশে ফেলে পালিয়ে যায়।

এ সময় স্থানীয়রা তার রক্তাক্ত লাশটি দেখতে পেয়ে পটিয়া থানায় খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে নিহতের ব্যবহৃত মোটরসাইকেল ও জবাইয়ে ব্যবহার করা একটি ধারালো অস্ত্র (দা) উদ্ধার করেছে।

পটিয়া সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তারিক রহমান, পটিয়া থানার পরিদর্শক ওসি (তদন্ত) রাশেদুল ইসলামসহ পটিয়া থানা পুলিশের একটি টিম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। তবে কী কারণে স্বর্ণ ব্যবসায়ী খুন হয়েছেন তা নিশ্চিত করতে পারেনি পুলিশ।

Yakub Group

পটিয়া সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তারিক রহমান জানান, ‘হত্যাকাণ্ডের ঘটনাটি কি কারণে বা কেন ঘটেছে তা এখনো জানা যায়নি। লাশটি উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ময়না তদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। যত দ্রুত সম্ভব হত্যাকাণ্ডের রহস্য উদঘাটন করার আমরা কাজ করছি।’

নিহতের ছোট ভাই রিমন ধর জানান, ‘আমার বড় ভাই বিমান ধর ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে প্রতিদিনের ন্যায় বাড়িতে আসছিলেন মোটরসাইকেল যোগে। বাড়ির অদূরে তাকে হত্যা করা হয়েছে গলা কেটে। আমাদের সাথে কারো শত্রুতা নেই। কেন এ ঘটনাটি ঘটেছে তা যেন উন্মোচন করে এটি আমি পুলিশের কাছে অনুরোধ জানাচ্ছি।’

নিহত বিমান ধরের ২ ছেলে ও ১ মেয়ে আছে।

এমএহক

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

ksrm