s alam cement
আক্রান্ত
১০২৩১৪
সুস্থ
৮৬৮৫৬
মৃত্যু
১৩২৮

চট্টগ্রামে মৃত্যু কমার পাশাপাশি শনাক্ত কমে ২১৯

0

চট্টগ্রামে করোনায় প্রাণহানি একদিন বাড়ে তো পরের দিন আবার কমে যায়। মৃত্যুর সংখ্যার এই ‘উঠা-নামার’ মধ্যেই চট্টগ্রামে আবারও কমলো প্রাণহানি। গত ২৪ ঘণ্টায় সেটি নেমে এসেছে ৫ জনে। একইসময়ে শনাক্ত আরও কমেছে। নতুনভাবে করোনার জীবাণু পাওয়া গেছে ২১৯ জনের শরীরে।

এই নিয়ে চট্টগ্রামে শনাক্তের সংখ্যা গিয়ে দাঁড়াল ৯৭ হাজার ৩৫২ জনে। এর মধ্যে নগরের ৭১ হাজার ১২৩ জন এবং উপজেলা পর্যায়ে ২৬ হাজার ২২৯ জন। অন্যদিকে, করোনা আক্রান্তদের মধ্যে ইতিমধ্যে ১ হাজার ১৮৩ জন মারা গেছেন। এর মধ্যে নগরে ৬৭০ এবং উপজেলায় ৫১৩ জন।

সোমবার (২৩ আগস্ট) সিভিল সার্জন কার্যালয় থেকে প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা যায়। তথ্য অনুযায়ী, এইদিন কক্সবাজার মেডিকেল কলেজসহ চট্টগ্রামের সরকারি-বেসরকারি ১১টি ল্যাব এবং বিভিন্ন এন্টিজেন টেস্টে ১ হাজার ৪১৯ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়। তাতে শনাক্ত ২১৯ জনের মধ্যে নগরে ১১৯ এবং উপজেলা পর্যায়ে ১০০ জন।

ল্যাবভিত্তিক রিপোর্টে দেখা যায়, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ল্যাবে ১৬০ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৫৬ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। ফৌজদারহাটের বিআইটিআইডিতে ২৫৮ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ১২ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজে ৪৬২ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৬৮ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।

চট্টগ্রামের বিভিন্ন ল্যাবে এন্টিজেন টেস্টে ১০১ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ২০ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। ইমপেরিয়াল হাসপাতালে ১২৭ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ১৩ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। শেভরনে ১৭২ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ১০ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। চট্টগ্রাম মা ও শিশু হাসপাতালে ৪৩ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৯ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। আরটিএলে ১৯ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ১১ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। মেডিকেল সেন্টার হাসপাতালে ১৯ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৩ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। ইপিক হেলথ কেয়ারে ৫৮ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ১৭ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।

এদিন চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি ও এনিম্যাল সাইন্সেস বিশ্ববিদ্যালয় এবং কক্সবাজারে চট্টগ্রামের কোন নমুনা পরীক্ষা হয় নি।

উপজেলা পর্যায়ে শনাক্তদের মধ্যে রাউজানে সবচেয়ে বেশি ৩০ জন রোগী পাওয়া যায়। এছাড়া, বোয়ালখালীতে২১ জন, পটিয়ায় ৯ জন, হাটহাজারী ও ফটিকছড়িতে ৮ জন করে, সীতাকুণ্ড ও মিরসরাইয়ে ৬ জন করে, সাতকানিয়া ও বাঁশখালীতে ৩ জন করে, আনোয়ারা ও চন্দনাইশে ২ জন করে এবং লোহাগাড়া ও রাঙ্গুনিয়ায় ১ জন করে করোনা শনাক্ত হয়। এদিনও সন্দ্বীপে কোন করোনা পজিটিভ পাওয়া যায়নি।

এমএহক

ManaratResponsive

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm