s alam cement
আক্রান্ত
১০১৪৩৬
সুস্থ
৮৬৩০২
মৃত্যু
১২৮৪

চট্টগ্রামে মিরাজের সেঞ্চুরির পর ‘দ্য ফিজ’ ঝলকে বাংলাদেশের দিন

0

মেহেদী হাসান মিরাজ ও মোস্তাফিজুর রহমানের বন্ধুত্বের কথা ক্রিকেটমহলে কারও অজানা নয়। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এ দুজনের একটি ভিডিও প্রায়ই দেখা যায় ক্রিকেটপ্রেমীদের প্রোফাইলে। যেখানে দেখা যায়, হোটেল রুমের মধ্যে মনের আনন্দে নাচছেন মিরাজ এবং খাটে শোয়া অবস্থায় তার কীর্তিকলাপ দেখছেন মোস্তাফিজ। ভিডিও নয় বাস্তবে এই দুজনের ক্রিকেটীয় কীর্তিকলাপে আনন্দে ভাসছে পুরো বাংলাদেশ দল।

চট্টগ্রাম টেস্টে এ দুই বন্ধুর ভিডিওর ঝলকই যেন বাস্তবে ফিরে এলো, তাতেই চট্টগ্রাম টেস্টের দ্বিতীয় দিনটি নিজেদের করে নিলো বাংলাদেশ। দিনের শুরুতে লিটন দাস আউট হওয়ার পর ব্যাটিংয়ে নেমে প্রায় পৌনে চার ঘণ্টা উইকেটে কাটান মিরাজ, তুলে নেন নিজের আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরি। তার ১০৩ রানের ইনিংসে ভর করে বাংলাদেশ পায় ৪৩০ রানের সংগ্রহ। পরে দিনের খেলা শেষ হওয়ার আগে ক্যারিবীয়দের দুই ব্যাটসম্যানকে তুলে নিয়েছে টাইগাররা। দুইটি উইকেটই গেছে মোস্তাফিজের ঝুলিতে।

চার স্পিনার নিয়ে দল সাজিয়েছে বাংলাদেশ। লক্ষ্য ঘূর্ণি-বিষে ওয়েস্ট ইন্ডিজের ব্যাটিংকে নাকাল করে দেওয়া। কিন্তু বাংলাদেশের পক্ষে প্রথম দুটি উইকেট তুলে নেন পেসার মোস্তাফিজুর রহমান। একাদশের একমাত্র পেসার।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের প্রথম ইনিংসে পঞ্চম ওভারে জন ক্যাম্পবেলকে তুলে নেন বাঁহাতি এ পেসার। এলবিডব্লু হয়ে ফেরেন এই ক্যারিবীয় ওপেনার।

মোস্তাফিজের বলটি ছিল লেংথ বল। অফ স্টাম্পের বাইরের বলটি ভেতরে ঢুকছিল। ক্যাম্পবেল ফ্লিক করতে চেয়েছিলেন। কিন্তু সেটি গিয়ে আঘাত করে তাঁর প্যাডে। রিভিউ নিয়েছিলেন ক্যাম্পবেল। কিন্তু তাতে সফল হননি। সেখানে দেখা গেছে বলটি মিডল আর লেগ স্টাম্পেই আঘাত করত।

পরের বলেই তিনে নামা শেন মোজলিকে তুলে নিতে পারতেন মোস্তাফিজ। তাঁর এলবিডব্লুর আবেদনে মাঠের আম্পায়ার সাড়াও দিয়েছিলেন। কিন্তু রিভিউ নিয়ে সে যাত্রায় বেঁচে যান মোজলি। পরে আর বাঁচতে পারেননি। তাঁর বলে সেই এলবিডব্লুর শিকারই হতে হয় মোস্তাফিজকে। রিভিউ নিয়ে এবার আর পার পাননি মোজলি। উল্টো একটি রিভিউ নষ্ট হয় ওয়েস্ট ইন্ডিজের।

Din Mohammed Convention Hall

দ্বিতীয় দিন শেষে তাদের সংগ্রহ ২ উইকেটে ৭৫ রান তুলেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। বাংলাদেশের প্রথম ইনিংস থেকে এখনো ৩৫৫ রানে পিছিয়ে সফরকারি দল। নিজেদের প্রথম ইনিংসে ৪৩০ রানে অলআউট হয় বাংলাদেশ। সেঞ্চুরি করেন মেহেদী হাসান মিরাজ (১০৩)।

এক প্রান্ত থেকে মোস্তাফিজ ও অন্য প্রান্ত থেকে সাকিব আল হাসানকে দিয়ে বোলিং শুরু করিয়েছেন বাংলাদেশ অধিনায়ক মুমিনুল হক। ১০ম ওভারে বোলিংয়ে এসেছেন মিরাজ। সাকিবের জায়গায় তাঁকে বোলিংয়ে আনা হয়।

এমএহক

ManaratResponsive

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm