চট্টগ্রামে মধ্যরাতে ট্রেন-ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষ, নিহত ১

গেটম্যান ঘুমিয়ে থাকার অভিযোগ

0

চট্টগ্রামের মিরসরাইয়ের বারইয়ারহাট রেলক্রসিংয়ে মধ্যরাতে ট্রেনের সঙ্গে ড্রাম ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে একজন নিহত হয়েছেন।

বুধবার (২২ জুন) রাত দেড়টায় ঢাকামুখী লেইনে তূর্ণা নিশিতা এক্সপ্রেস ও বারইয়ারহাটমুখী বালু ভর্তি ড্রাম ট্রাকের মধ্যে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

নিহত মো. মোরছালিন (১৯) ট্রাকের সহকারী চালক (হেলপার)। তিনি লক্ষীপুর জেলা সদরের আন্দারমানিক এলাকার শামসুল আলমের পুত্র।

দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন ট্রাকের চালক শাহ আলম (৪০)। তিনি লক্ষীপুর পৌরসভার ২ নম্বর ওয়ার্ড বাঞ্চনগর গ্রামের সুজা মিয়ার পুত্র। প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা নেওয়া হয়েছে।

স্থানীয়রা জানান, ঘটনার সময় গেইটম্যান মো. আনোয়ার হোসেন তার রুমে ঘুমাচ্ছিলেন। তার জন্য দুর্ঘটনা ঘটে। তিনি প্রায় সময় ঘুমে থাকে।

Yakub Group

চিনকীআস্তানা রেল স্টেশন মাস্টার মো. সিরাজুল হক বলেন, মঙ্গলবার দিবাগত রাতে বারইয়ারহাট রেলক্রসিং এলাকায় মহানগর তূর্ণা নিশিতা এক্সপ্রেসের সাথে সাথে একটি ড্রাম ট্রাকের সংঘর্ষ হয়। এতে ১ জন নিহত ও ১ জন আহত হয়েছে। শুনেছি গেটম্যান ঘুমিয়ে ছিলো। দুর্ঘটনার জন্য গেটম্যান দায়ী কিনা বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

যোগাযোগ করা হলে সীতাকুণ্ড রেলওয়ে ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই খোরশেদ আলম বলেন, বুধবার রাত ১টা ১০ মিনিটে বারইয়ারহাট রেলক্রসিং এলাকায় চট্টগ্রাম থেকে ছেড়ে যাওয়া ঢাকামুখী লাইনে ঢাকাগামী মহানগর তূর্ণা নিশিতা এক্সপ্রেসের সাথে করেরহাট থেকে বালু বোঝায় একটি ড্রাম ট্রাকের সংঘর্ষ ঘটে। এতে ট্রাকের চালক ও হেলপার গুরুত্বর আহত। পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে মস্তাননগর নিয়ে গেলে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত ৩ টার সময় হেলপার মোরছালিনের মৃত্যু হয়। এছাড়া চালক শাহ আলমের অবস্থার গুরুত্বর হওয়ায় তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে ঢাকা প্রেরণ করা হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, ঘটনাস্থলে যাওয়ার পর স্থানীয়রা অভিযোগ করেন ট্রেন চলাচলের সময় গেইটবার না পেলে গেটম্যান আনোয়ার হোসেন ঘুমে ছিলো। ফলে এই দুর্ঘটনা ঘটে। এছাড়া তার বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ পাওয়া গেছে। আমি বিষয়টি উদ্বর্ধন কর্মকর্তাদের জানিয়েছে।

এমএহক

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm