চট্টগ্রামে ব্রেস্ট ক্যান্সারে ভোগা ‘লিনিস’ মরে গিয়ে কাঁদাল সবাইকে

৭ ডাক্তারের ৩ ঘণ্টার রুদ্ধশ্বাস অপারেশন

0

ব্রেস্ট ক্যান্সার আক্রান্ত একটি পোষা প্রাণীকে বাঁচাতে প্রাণপণ চেষ্টা করলেন চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি এন্ড অ্যানিমেল সায়েন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের ৭ জন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক। ভেটেরিনারি বিশ্ববিদ্যালয়ের অপারেশন থিয়েটারে যখন চলছিল টানা তিন ঘণ্টার অস্ত্রোপচার, বাইরে তখন সবাই কাতর প্রতীক্ষায়। অস্ত্রোপচার যখন ব্যর্থ হল— সবার বুকফাটা আহাজারিতে পুরো পরিবেশ হয়ে উঠেছিল ভারী। সব প্রচেষ্টা ব্যর্থ করে দিয়ে ধীরে ধীরে পালস রেট কমতে থাকে কুকুরটির এবং একসময় সেটি ঢলে পড়ে মৃত্যুর কোলে।

এই সবকিছুই একটি কুকুরের জন্য— শেষ পর্যন্ত ‘লিনিস’ নামের যে কুকুরটিকে বাঁচানো সম্ভব হয়নি।

দেশের শীর্ষ মেডিকেল যন্ত্রপাতি উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান প্রমিস্কো গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মৌসুমী ইসলামের অনেকগুলো পোষা কুকুরের একটি হচ্ছে— অ্যাপসো প্রজাতির এই ‘লিনিস’। এই কুকুরটিকে তিনি প্রায় ১২ বছর ধরে লালনপালন করে আসছিলেন। সাধারণত চীনের তিব্বতে এই কুকুরটি বেশি দেখতে পাওয়া যায়।

চট্টগ্রামে ব্রেস্ট ক্যান্সারে ভোগা ‘লিনিস’ মরে গিয়ে কাঁদাল সবাইকে 1

৬ মাস বয়স থেকেই মৌসুমী ইসলামের কুকুরটি ভুগছিল ব্রেস্ট ক্যান্সারে। ক্যান্সার আক্রান্ত এ ধরনের কুকুর ছয় মাসের মতো বাঁচে। তবে ওই কুকুরটির শরীরে ক্যান্সার দ্রুত ছড়িয়ে পড়ায় তার বাঁচার সম্ভাবনা খুব ক্ষীণ হয়ে দাঁড়ায়।

এমন অবস্থায় শুক্রবার (১২ নভেম্বর) সকাল থেকে চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাতজন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক প্রায় ৩ ঘণ্টা অপারেশন করেও বাঁচাতে পারেননি লিনিসকে।

চট্টগ্রামে ব্রেস্ট ক্যান্সারে ভোগা ‘লিনিস’ মরে গিয়ে কাঁদাল সবাইকে 2

বাড়ির লোকের অনুপস্থিতিতে পোষা প্রাণীকে নিরাপদে রাখা, এর খাদ্যের সংস্থান ও যত্ন–আত্নিসহ উন্নত চিকিৎসার জন্য মৌসুমী ইসলামের উদ্যোগে ২০১৯ সালের নভেম্বরে ঢাকার উত্তরার ৭ নম্বর সেক্টরে প্রতিষ্ঠিত হয় এলডি ভেটেরিনারি হাসপাতাল অ্যান্ড ডে–কেয়ার সেন্টার

এর নেপথ্য কারণও ছিল লিনিস নামের এই কুকুরটি। দুই বছর আগেও একবার লিনিস গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়ে। তখন দেশে ওর জন্য ভালো চিকিৎসার কোনো ব্যবস্থা করা যায়নি। পরে সিঙ্গাপুরের একটা প্রাণী হাসপাতালে যোগাযোগ করে মরণাপন্ন লিনিসের রক্তের নমুনা সেখানে পাঠানো হয়। এতে লিনিসের লিভারের সমস্যা ধরা পড়ে। পরে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ওই চিকিৎসকদের পরামর্শক্রমে চিকিৎসা দিলে লিনিস বেঁচে যায়। এরপরই বাংলাদেশের পোষা প্রাণীদের জন্য একটা উন্নতমানের হাসপাতাল গড়ে তোলার ভাবনা আসে। হাসপাতালটির নামকরণও করা হয় মৌসুমী ইসলামের পোষা দুই কুকুর লিনিস ও ডিউকের আদ্যক্ষর দিয়ে।

চট্টগ্রামে ব্রেস্ট ক্যান্সারে ভোগা ‘লিনিস’ মরে গিয়ে কাঁদাল সবাইকে 3

চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিসিন ও সার্জারি বিভাগের সাবেক প্রধান ডা. বিবেক চন্দ্র সূত্রধর গণমাধ্যমকে বলেন, এর আগেও সার্জারি হয়েছিল কুকুরটির। তবে এবারের অপারেশন ছিল তাকে বাঁচানোর শেষ চেষ্টা।

তিনি আরও বলেন, দেশের বাইরে প্রায়ই এই ধরনের অপারেশন হলেও বাংলাদেশে পশু চিকিৎসার ক্ষেত্রে এ ধরনের বড় অপারেশন এটিই প্রথম।

অত্যাধুনিক সরঞ্জাম এবং এই বিষয়ে আরও গবেষণা হলে ভবিষ্যতে এই ধরনের অপারেশনে সফলতা আসবে বলে আশা করছেন চিকিৎসকরা।

সিপি

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm