চট্টগ্রামে বেড়েছে পাসের হার ও জিপিএ-৫

জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) পরীক্ষায় এ বছর চট্টগ্রাম শিক্ষাবোর্ডে পাসের হার ৮২.৯৩ শতাংশ। যা গত বছরের তুলনায় ১.৪১ শতাংশ বেড়েছে। একইসাথে বেড়েছে জিপিএ-৫।

এবার মোট জিপিএ-৫ পেয়েছে ৬ হাজার ৪১ জন শিক্ষার্থী। যা গতবারের তুলনায় ২.৯৩ শতাংশ বেশি। এর মধ্যে জিপিএ-৫ প্রাপ্ত ছাত্রী ৩ হাজার ৬২২ জন এবং ছাত্র ২ হাজার ৪১৮ জন।

মোট পরীক্ষার্থীর মাঝে পাস করেছে ১ লাখ ৭০ হাজার ৭৩৪ জন। এর মধ্যে ছাত্র ৭৫ হাজার ৪০২ জন এবং ছাত্রী ৯৫ হাজার ৩৩২ জন। ছাত্র পাসের হার ৮২.৭৯ শতাংশ এবং ছাত্রী পাসের হার ৮৩.০৫ শতাংশ।

এদিকে, চট্টগ্রাম মহানগরে পাসের হার ৮৭.৬৩ শতাংশ, যা গতবার ছিল ৮৭.১৯ শতাংশ। মহানগর বাদে চট্টগ্রাম জেলার পাসের হার ৮১.১৬ শতাংশ, যা গতবার ছিল ৭৮.৩৯ শতাংশ। মহানগরসহ চট্টগ্রাম জেলার পাসের হার ৮৩.২৪ শতাংশ, যা গতবারের তুলনায় ২.০৬ শতাংশ বেশি।

অন্যদিকে, কক্সবাজারে পাসের হার ৮৪.১০ শতাংশ, রাঙামটিতে ৭৯.৫০ শতাংশ, খাগড়াছড়িতে ৮০.৮৮ শতাংশ এবং বান্দরবানে ৭৯.৭৭ শতাংশ।

মঙ্গলবার (৩১ ডিসেম্বর) দুপুরে চট্টগ্রাম শিক্ষাবোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক নারায়ণ চন্দ্র নাথ এ ফলাফল ঘোষণা করেন।

নারায়ণ চন্দ্র নাথ বলেন, এ বছর চট্টগ্রাম শিক্ষাবোর্ডের অধীনে অংশ নেওয়া পরীক্ষার্থীদের মধ্যে গতবারের তুলনায় পাসের হার ও জিপিএ দুটোই বেড়েছে।

গতবছর ছিল ৮১.৫২ শতাংশ এবার ৮৩.৯৩ শতাংশ। গতবার জিপিএ-৫ ছিল ২.৫৮ শতাংশ এবার ২.৯৩ শতাংশ।

তিনি আরও বলেন, ১ হাজার ২৭৪ টি বিদ্যালয়ের মাঝে শতভাগ পাস করেছে ১০২ টি বিদ্যালয়। ৫০ শতাংশের নিচে পাস করেছে এমন বিদ্যালয়ের সংখ্যা ৮ টি।

এসআর/এসএইচ

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!