চট্টগ্রামে বুধবার থেকে শুরু স্কুল ভর্তি আবেদন, চলবে ৬ ডিসেম্বর পর্যন্ত

চট্টগ্রামে আগামীকাল বুধবার থেকেই শুরু হতে যাচ্ছে ২০২৩ শিক্ষাবর্ষের বিদ্যালয়ের ভর্তি কার্যক্রম। ১১০ টাকা আবেদন ফি’র মাধ্যমে নগরীর ১০টি সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়সহ বেসরকারি বিদ্যালয়ে ভর্তির আবেদন শুরু হয়ে চলবে ৬ ডিসেম্বর পর্যন্ত।

https://gsa.teletalk.com.bd এই ঠিকানার মাধ্যমে ১৬ নভেম্বর সকাল ১১টা থেকে ৬ ডিসেম্বর বিকেল ৫টা পর্যন্ত আবেদন করা যাবে।

এছাড়াও গতবারের মত এবারও কোনোধরণের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হচ্ছেনা। লটারির মাধ্যমেই ভাগ্য নির্ধারণ হবে শিক্ষার্থীদের।

আগামী ১০ ডিসেম্বর সরকারি স্কুলে ও ১৩ ডিসেম্বর বেসরকারি স্কুলে ভর্তির লটারির কার্যক্রম শেষ হবে। এবং লটারিতে নির্বাচিত সকল শিক্ষার্থীদের ভর্তি পক্রিয়া ২৮ ডিসেম্বরের মধ্যে শেষ করার নির্দেশ দিয়েছেন চট্টগ্রাম মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড।

আবেদন যেভাবে

gsa.teletalk.com.bd এই লিংকে প্রবেশ করে সরকারি-বেসরকারি স্কুলের ভর্তির অনলাইন আবেদন করা যাবে। ভর্তি তথ্য দেওয়ার পর টেলিটক প্রিপেইড মোবাইল নম্বর থেকে এসএমএসের মাধ্যমে আবেদন ফি দেওয়া যাবে।

Yakub Group

অনলাইনে আবেদন সাবমিট করলে প্রার্থীরা ইউজার আইডি পাবে এবং সেই ইউজার আইডি ব্যবহার করে টেলিটকের প্রিপেইড নম্বরের মাধ্যমে এসএমএসে আবেদন ফি পরিশোধ করা যাবে। ৬ ডিসেম্বর রাত ১২টা পর্যন্ত ফি জমা দেয়া যাবে।

সরকারি স্কুলে ভর্তি আবেদনের প্রক্রিয়া

সরকারি স্কুলের ভর্তি বা মহানগরীর সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়গুলো ৩টি ভিন্ন গ্রুপে বিভক্ত থাকবে। আবেদনের সময় একজন প্রার্থী একই গ্রুপে পছন্দের ক্রমানুসারে ৫টি বিদ্যালয় নির্বাচন করতে পারবে।

এছাড়া সারাদেশে আবেদনকারীরা আবেদনের সময় প্রতিষ্ঠান নির্বাচনের জন্য থানাভিত্তিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের তালিকা পাবেন। এক্ষেত্রে প্রার্থীরা প্রাপ্যতার ভিত্তিতে প্রতিটি আবেদনে সর্বোচ্চ ৫টি বিদ্যালয় পছন্দের ক্রমানুসারে নির্বাচন করতে পারবে।

ডাবল শিফটের প্রতিষ্ঠানের ক্ষেত্রে উভয় শিফট পছন্দ করলে দুটি পছন্দক্রম সম্পন্ন হয়েছে বলে বিবেচিত হবে। একই পছন্দক্রমের বিদ্যালয় কিংবা শিফট দ্বিতীয় বার পছন্দ করা যাবে না।

বেসরকারি স্কুলে ভর্তি আবেদনের প্রক্রিয়া

বেসরকারি স্কুলের ভর্তি বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, মহানগরীর বেসরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ক্ষেত্রে প্রতিষ্ঠান সংলগ্ন কমপক্ষে একটি এবং সর্বোচ্চ ৩টি থানা ক্যাচমেন্ট এরিয়া হিসেবে নির্ধারণ করা যাবে।

এছাড়াও প্রার্থীরা আবেদনের সময় প্রতিষ্ঠান নির্বাচনের সময় মহানগর পর্যায়ের জন্য বিভাগীয় সদরের মেট্রোপলিটন এলাকা এবং জেলা সদরের সদর উপজেলার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের তালিকা পাবে।

প্রার্থীরা প্রাপ্যতার ভিত্তিতে প্রতিটি আবেদনে সর্বোচ্চ পাঁচটি বিদ্যালয় পছন্দের ক্রমানুসারে নির্বাচন করতে পারবে।

ডাবল শিফটের প্রতিষ্ঠানের ক্ষেত্রে উভয় শিফট পছন্দ করলে দুটি পছন্দক্রম সম্পন্ন হয়েছে বলে বিবেচিত হবে। একই পছন্দ ক্রমের বিদ্যালয় বা শিফট দ্বিতীয়বার পছন্দ করা যাবে না।

বিএস/এমএফও

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

ksrm