চট্টগ্রামে বিচারককে স্যান্ডেল ছুড়ে মারলেন আসামি

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর উপজেলার ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলার এক আসামি চট্টগ্রাম বিভাগীয় সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক মোহাম্মদ জহিরুল কবিরকে (জেলা ও দায়রা জজ) লক্ষ্য করে স্যান্ডেল ছুড়ে মারাসহ অশ্রাব্য ভাষায় গালিগালাজের ঘটনা ঘটেছে।

মঙ্গলবার (২৮ নভেম্বর) বেলা ১২টার দিকে চট্টগ্রাম বিভাগীয় সাইবার ট্রাইব্যুনালে এ ঘটনা ঘটে।

মনির খান মাইকেল (৩২) ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর উপজেলার বাসিন্দা। তিনি কুমিল্লায় ফেরী করে পণ্য বিক্রি করেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে পিপি মেজবাহ উদ্দিন চৌধুরী বলেন, বিচারক মোহাম্মদ জহিরুল কবির আসনে বসার পর পর ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় অভিযুক্ত আসামি মাইকেল বিচারককে লক্ষ্য করে অশ্রাব্য ভাষায় গালিগালাজ করতে থাকেন। এ সময় কেন মাইকেলকে জামিন দেওয়া হচ্ছে না— তা জানতে চেয়ে বিচারককে লক্ষ্য করে পর পর দুটি স্যান্ডেল ছুড়ে মারে মাইকেল। পরে পাশে দাঁড়িয়ে থাকা পুলিশ সেই আসামিকে নিবৃত্ত করে।

মঙ্গলবার (২৮ নভেম্বর) রাত সাড়ে ৭টা নাগাদ এ ঘটনায় মামলা হয়েছে কি-না জানতে চাইলে কোতোয়ালী থানা সূত্রে জানায়, এখনও কোনো মামলা হয়নি। এজাহার নিয়েও কেউ আসেনি।

ট্রাইব্যুনাল সূত্রে জানা গেছে, মুক্তিযুদ্ধ, বঙ্গবন্ধু, সাবেক রাষ্ট্রপতি আব্দুল হামিদ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরকে নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে কুরুচিপূর্ণ লেখালেখি ও মন্তব্য করার অভিযোগে ২০২১ সালের ২২ জানুয়ারি ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগর থানার এসআই তপু সাহা বাদী হয়ে মাইকেলের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করেন।

এর আগে ২০২১ সালের ২০ জানুয়ারি কুমিল্লার কোতোয়ালী থানার এক মামলায় পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে। পরে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে দায়ের করা মামলায় একই বছরের ২৩ জানুয়ারি তাকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়। গ্রেপ্তার হওয়ার পর থেকে এখনও কারাগারে আছেন মাইকেল।

ট্রাইব্যুনাল পিপি মেজবাহ উদ্দিন চৌধুরী আরও বলেন, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় ২০২১ সালের ২০ জুন আদালতে অভিযোগপত্র দেয় পুলিশ। এই মামলায় অভিযোগ গঠনের পর এ পর্যন্ত তিন জন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ হয়েছে।

আরএস

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!