চট্টগ্রামে প্রেমের ফাঁদে ফেলে গার্মেন্টসকর্মীকে ধর্ষণ, প্রেমিকসহ গ্রেপ্তার ৩

চট্টগ্রামের আনোয়ারায় প্রেমের ফাঁদে ফেলে এক গার্মেন্টসকর্মী নারীকে ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে।

শনিবার (২০ মে) রাতে উপজেলার রায়পুর ইউনিয়নের পূর্ব বিলের পরিত্যক্ত একটি ঘরে এই ধর্ষণের ঘটনা ঘটে।

এই ঘটনায় প্রেমিকসহ তিনজনকে শুক্রবার সকাল ১১টায় গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে নিশ্চিত করেন আনোয়ারা থানার অফিসার ইনচার্জ মির্জা মোহাম্মদ হাছান।

গ্রেপ্তার আসামিরা হলেন প্রেমিক চুন্নাপাড়া আপাজ উল্লাহ মাঝির বাড়ির মো. শাহ নূরের ছেলের রাসেল (২৫), ক্ষতিরপাড়া এলাকার মো. নূরুল আলমের ছেলে আরিফ (২৬) ও চুম্মা বাড়ি এলাকার আব্দুল হামিদের ছেলে মো. আরিফ (২৬)।

এর আগে ওই গার্মেন্টসকর্মী কিশোরীর মা বাদি হয়ে চারজনকে আসামি করে থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, ওই গার্মেন্টসকর্মী কর্ণফুলী ইপিজেড সু-ফ্যাক্টরিতে চাকরি করে। যাতায়াতের সুবাদে স্থানীয় সিএনজিচালক রাসেলের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। গত ২০ মে সন্ধ্যায় সু-ফ্যাক্টরি ছুটির পর আরিফ ও রাসেল কৌশলে ভুক্তভোগীকে সিএনজি করে ওয়াহেদ আলী চৌধুরী হাটে নিয়ে আসে। এরপর শাকিল উদ্দিন টিটু ও আব্দুল আজিজসহ সেখান থেকে রাত ১০টায় সিএনজি করে তাকে রায়পুরের পূর্বের বিল পরিত্যক্ত মুড়ির ঘরে নিয়ে গিয়ে হাত ও মুখে কাপড় বেঁধে ফেলে। এরপর পালাক্রমে রাত ২টা পর্যন্ত চারজন মিলে ধর্ষণ করে তাকে। এই সময় মুখের কাপড় সরে গেলে সে চিৎকার করে। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে পরিবারকে খবর দেয়।

ঘটনার বিষয়ে আনোয়ারা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মির্জা মোহাম্মদ হাছান বলেন, ‘সংঘবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ অভিযান চালিয়ে কথিত প্রেমিকসহ তিনজনকে গ্রেপ্তার করেছে। তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।’

ডিজে

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!