চট্টগ্রামে ট্রেন দুর্ঘটনা—চোখের জলে চিরবিদায় ১১ তরুণকে

ট্টগ্রামের মিরসরাইয়ের ট্রেন দুর্ঘটনায় নিহত ১১ তরুণকে জানাজা শেষে কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে।

শনিবার (৩০ জুলাই) সকালে সাড়ে ১০টায় চট্টগ্রামের হাটহাজারী উপজেলার আমানবাজার খন্দকিয়া ছমুদিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সকাল সোয়া ১০টায় ৫ জনের জানাজা সম্পন্ন হয়।

নিহত বাকি ৫ জনের জানাজা হাটহাজারীর কে এস নজু মিয়া উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে ১০ টা ৪৫ মিনিটে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

এছাড়া সকাল ১১ টায় শিকারপুর এলাকায় একক জানাজা হয় দুর্ঘটনায় নিহত জিসানের।

এদিকে তরুণদের বহনকারী অ্যাম্বুলেন্স মাঠে এসে পৌঁছালে খন্দকিয়া ছমুদিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও কে এস নজু মিয়া উচ্চ বিদ্যালয় মাঠ মানুষের উপস্থিতিতে কানা কানায় পূর্ণ হয়ে উঠে। জানাজায় স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গসহ সর্বস্তরের মানুষ উপস্থিত ছিলেন।

অপরদিকে নিহত মারুফ ও জিসানের জানাজা গতকাল শুক্রবার (২৯ জুলাই) রাতে অনুষ্ঠিত হয়। পরে তাদের পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে

Yakub Group

প্রসঙ্গত, গতকাল শুক্রবার (২৯ জুলাই) দুপুর দেড়টার দিকে মিরসরাইয়ের বড়তাকিয়া রেলস্টেশনের কাছে খৈয়াছড়া ঝর্না এলাকায় রেললাইন পার হওয়ার সময় ট্রেনের ধাক্কায় মাইক্রোবাসে থাকা ১১ জন তরুণ নিহত হন। এ ঘটনায় আহত ৬ জন চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

নিহতরা হলেন, হাটহাজরী উপজেলার আজিম সাবরেজিস্ট্রার বাড়ির হাজি মো. ইউসুফের ছেলে মাইক্রোবাস চালক গোলাম মোস্তফা নিরু (২৬), চিকনদণ্ডী ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের মো. ইলিয়াছ ভুট্টোর ছেলে মোহাম্মদ হাসান (১৭), একই ইউনিয়নের খোন্দকার পাড়ার আবদুল হামিদের ছেলে জিয়াউল হক সজীব (২২), ৮ নম্বর ওয়ার্ডের আজিজ মেম্বার বাড়ির জানে আলমের ছেলে ওয়াহিদুল আলম জিসান (২৩), মজিদ আব্বাস চৌধুরী বাড়ির বাদশা চৌধুরীর ছেলে শিক্ষক রিদুয়ান চৌধুরী (২২), পারভেজের ছেলে সাগর (১৭) ও একই এলাকার আবদুল ওয়াদুদ মাস্টার বাড়ির আবদুল মাবুদের ছেলে ইকবাল হোসেন মারুফ (১৭), ৬ নম্বর ওয়ার্ডের মোজাফফর আহমেদের ছেলে মোসহাব আহমেদ হিসাম (১৬), আব্দুল আজিজ বাড়ির মৃত পারভেজের ছেলে তাসমির হাসান (১৭), মনসুর আলমের ছেলে মো. মাহিম (১৭) এবং ২ নম্বর ওয়ার্ডের আবু মুসা খান বাড়ির মোতাহের হোসেনের ছেলে মোস্তফা মাসুদ রাকিব (১৯)।

এমএ/এমএফও

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!