চট্টগ্রামে টিকার তথ্য সংগ্রহে চালু হলো ‘ই-ট্র্যাকার’

চট্টগ্রামে টিকাদান কার্যক্রমে ই-ট্র্যাকার চালু করেছে সিটি কর্পোরেশন। শিশুদের টিকাদানের ইপিআই কার্যক্রমকে ডিজিটাল প্লাটফর্মে রূপান্তরের মাধ্যমে এক বছরের নিচে সকল শিশুকে চিহ্নিত করা এবং আরও নিখুঁতভাবে কাভারেজের আওতায় আনার লক্ষ্যে এটি চালু করা হয়।

সোমবার (২০ মে) নগরীর পেনিনসুলা হোটেলের ডালিয়া হলে ইউনিসেফের সহায়তায় এই কার্যক্রমের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মো. রেজাউল করিম চৌধুরী।

উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মেয়র বলেন, ইমিউনাইজেশন ই-ট্র্যাকারের মতো একটি আধুনিক প্রযুক্তি বাংলাদেশে টিকাদান কার্যক্রমে সংযোজন একটি যুগোপযোগী পদক্ষেপ। ইতোমধ্যে ভ্যাকসিন হিরোর স্বীকৃতি এনে দিয়েছে বাংলাদেশের টিকাদান কার্যক্রমের সাফল্য।

তিনি বলেন, ই-ট্র্যাকার চালুর মূল উদ্দেশ্য নগরে টিকা না পাওয়া বা কম পাওয়া এবং ভাসমান শিশুদের খুঁজে বের করে টিকা কার্যক্রমের আওতায় আনা। আমরা টিকাদানকে শতভাগ নিশ্চিত করতে চাই।

মেয়র বলেন, চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের ইপিআই কার্যক্রম জোরদারের লক্ষ্যে ‘স্মার্ট হেলথ বিডি অ্যাপ’র মাধ্যমে ইপিআই ই-ট্র্যাকারের কার্যক্রম গত ১ জানুয়ারি থেকে পরিচালিত হচ্ছে। এছাড়া ২০ এপ্রিল থেকে GIS-Based Online Microplanning & Reporting ইপিআই কার্যক্রমের সঙ্গে সম্পৃক্ত করা হয়েছে। এ কার্যক্রমে ইতোমধ্যে নগরীর ১৩ হাজার শিশুকে স্মার্ট হেলথ বিডি অ্যাপের মাধ্যমে নিবন্ধন করা হয়েছে।

সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ মুহম্মদ তৌহিদুল ইসলামের সভাপতিত্বে সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন ইউনিসেফ বাংলাদেশের প্রধান মায়া ভেন্ডেন্যান্ট, ইউনিসেফ চট্টগ্রাম বিভাগের প্রধান ফিল্ড অফিসার মাধুরী ব্যানার্জী, সিটি কর্পোরেশনের স্বাস্থ্য স্ট্যান্ডিং কমিটির সভাপতি কাউন্সিলর জহর লাল হাজারী।

স্বাগত বক্তব্য দেন প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. মো. ইমাম হোসেন রানা।

ই-ট্র্যাকার নিয়ে একটি স্লাইড শো উপস্থাপন করেন ইউনিসেফের হেলথ স্পেশালিস্ট ডা. রিয়াদ মাহমুদ।

আরও উপস্থিত ছিলেন সিটি কর্পোরেশনের প্যানেল মেয়র মো. গিয়াস উদ্দিন, আফরোজা কালাম, কাউন্সিলর ছালেহ্ আহম্মদ চৌধুরী, সলিম উল্লাহ বাচ্চু, নাজমুল হক ডিউক, মো. ইসমাইল, সফিউল আজিম, আবদুস সালাম মাসুম, নুরুল আমিন, আবুল হাসনাত মো. বেলাল, জাফরুল হায়দার চৌধুরী সবুজ, সংরক্ষিত কাউন্সিলর তসলিমা বেগম নুরজাহান।

বিএস/ডিজে

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!