চট্টগ্রামে জায়গা দেখাতে নিয়ে যুবক অপহরণ, সাড়ে ১০ লাখ টাকা মুক্তিপণে ছাড়া

চট্টগ্রামে জায়গা দেখাতে নিয়ে এক যুবককে অপহরণের ৩০ ঘণ্টা পর সাড়ে ১০ লাখ টাকা মুক্তিপণ নিয়ে ছেড়েছে অপহরণকারীরা। এ সময় তাকে মারধর করা হয়।

অপহরণের শিকার ওই যুবকের নাম এসএম আবুল বরকত আকাশ। তিনি বাংলাদেশ টুডে নামের একটি গণমাধ্যমে চট্টগ্রাম ব্যুরোতে কর্মরত আছেন বলে জানা গেছে।

বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) মুক্তিপণ নেওয়ার পর ছাড়া হয় আকাশকে। চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসার পর তিনি বায়েজিদ থানায় মামলা করতে যান।

ভুক্তভোগী আকাশ জানান, চট্টগ্রামের বায়েজিদর বালুছড়ার তুফানি রোড নামের আশপাশে একটি জায়গা কেনার জন্য দেখতে যান আকাশ। মোহাম্মদ আলী নামের এক ছোট ভাইয়ের সঙ্গে ওই জমি দেখতে গেলে ৮-১০ জনের একটি সন্ত্রাসী দল আমাকে মারধর করে কালো রঙের প্রাইভেট কারে তুলে চোখ বেঁধে ফেলে। তারপর অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে বেধড়ক মারধর করে। ওই সময় তাদের সময়ে নারীও ছিলেন।

তিনি জানান, হঠাৎ চোখের বাঁধন খুলে গেলে তিনি পথে বিভিন্ন দোকানের সাইনবোর্ডে রাউজান, রাঙ্গুনিয়া ও রাঙামাটির নাম দেখেন। অপহরণকারীরা তার স্ত্রী ও ভাইকে ৫০ লাখ টাকা এবং চেক বইসহ সঙ্গে নিয়ে যোগাযোগ করতে বলেন। পুলিশকে জানালে লাশ ফেলার হুমকি দেয়।

৩ ঘণ্টা বিভিন্ন স্থানে ঘুরিয়ে শেষ ১২ জুন গভীর রাতে রাঙ্গুনিয়া উপজেলার পোমরা ইউনিয়নের সৌদিয়া গেট সংলগ্ন এলাকা নগদ ৭ লাখ ও অনলাইন ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে সাড়ে তিন লাখ টাকা নেয় অপহরণকারীরা। একইসঙ্গে তারিখবিহীন তার ও তার স্ত্রীর চেক বইয়ে স্বাক্ষর নিয়ে অপহরণকারীরা ছেড়ে দেয় বলে জানান আকাশ।

আকাশের স্ত্রী ডলি করিম বায়েজিদ থানায় মামলা দায়েরের কথা জানান।

বায়েজিদ থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সঞ্জয় কুমার সিনহা বলেন, ‘ভুক্তভোগী এসেছেন। তার কাছ থেকে ঘটনার বর্ণনা শুনে আইনি ব্যবস্থা নেবো।’

জেএস/ডিজে

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!