চট্টগ্রামে জামায়াতের অর্থ যোগানদাতাসহ ৪৯ নেতাকর্মী গ্রেপ্তার

0

চট্টগ্রাম কোতোয়ালী থানা এলাকার একটি হোটেলে মিটিং করছিলো জামায়াতের ৪৯ জন নেতাকর্মী। আর গোপন সংবাদ পেয়ে সেই ৪৯ জনকে আটক করলো পুলিশ।

আটককৃতদের মধ্যে কোতোয়ালী থানা জামায়াতের আমিরসহ ১৭ জন পদধারী নেতা আছেন। এদের মধ্যে একজন জামায়াতের অর্থ যোগানদাতা রয়েছে। এদের মধ্যে আবুল মনসুর। পেশায় তিনি একজন ব্যবসায়ী বলে জানায় পুলিশ।

মঙ্গলবার (১৭ মে) দুপুরে কোতোয়ালী থানায় আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ (সিএমপি) দক্ষিণের উপ- পুলিশ কমিশনার জসিম উদ্দীন।

এ সময় তিনি বলেন, ‘গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে সোমবার রাত ১০টায় আন্দরকিল্লা টেরিবাজার এলাকার আল বয়ান নামক হোটেল থেকে জামায়াতের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীসহ মোট ৪৯ জনকে আটক করা হয়। এদের মধ্যে পদধারী নেতাদের রিমান্ডের আবেদনসহ আটককৃত সকলের বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে।’

আটক নেতারা হলেন কোতোয়ালী থানা জামায়াতের আমির মো. ফরিদ আলম (৪৭), কোতোয়ালী থানা দক্ষিণ শাখা জামায়াতের প্রধান সমন্বয়কারী ফরিদ উদ্দীন (৪৪), বায়তুল সম্পাদক মো. নুরুল কবির (৬৫), দফতর সম্পাদক এমদাদ উল্ল্যাহ (৩৪), জামায়াতের রোকন সাইফুদ্দিন খালেদ (৩৫), জামায়াতের বক্সিরহাট শাখার সাধারণ সম্পাদক ও অর্থ জোগানদাতা আবুল মনছুর (৫০), টেরিবাজার শাখা জামায়াতের সভাপতি মো. হুমায়ুন কবির (৫০), টেরিবাজার কাটাপাহাড় শাখা জামায়াতের সভাপতি রাশেদুল করিম রাশেদ (৩৪), সহ-সভাপতি হাফেজ মো. তাজুল ইসলাম (৩৮), মোহাম্মদ ইসরাফিলসহ বাকি ৩৯ জন জামায়াতের কর্মী সমর্থক।

Yakub Group

সংবাদ সন্মেলনে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ (সিএমপি) অতিরিক্ত উপ পুলিশ কমিশনার নোবেল চাকমা, সিনিয়র সহকারী কমিশনার মুজাহিদুল ইসলাম, কোতোয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাহিদুল কবির।

বিএস/এমএফও

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm