চট্টগ্রামে চাল-আটা মিলছে আরও সাত ট্রাকে, ওএমএসের ট্রাক বেড়ে দ্বিগুণ

0

চট্টগ্রামসহ ১১টি সিটি কর্পোরেশন এলাকায় খোলাবাজারে চাল-আটা বিক্রির (ওএমএস) জন্য ট্রাকের (ট্রাকসেল) সংখ্যা বাড়লো দ্বিগুণেরও বেশি।

বর্তমানে ওএমএস কার্যক্রমের আওতায় একজন ব্যক্তি ৩০ টাকা কেজি দরে সর্বোচ্চ পাঁচ কেজি চাল এবং ১৮ টাকা কেজি দরে সর্বোচ্চ পাঁচ কেজি আটা কিনতে পারেন।

নিত্যপণ্যের দাম ক্রমেই বাড়তে থাকায় খোলাবাজারে চাল-আটা কেনার (ওএমএস) জন্যও চাহিদা বাড়ছে। এমন পরিস্থিতিতে বৃহস্পতিবার (১৭ মার্চ) থেকে আরও ৬৫টি ট্রাকের মাধ্যমে চাল-আটা বিক্রি করা হবে। এর মধ্যে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন এলাকায় বাড়ছে আরও সাতটি ট্রাক। এসব ট্রাকের প্রতিটিতে তিন টন করে চাল বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।

এর আগে সারাদেশের ১১টি সিটি করপোরেশনে ৫৪টি ট্রাকসেলের কার্যক্রম চলছিল। এখন সবমিলিয়ে মোট ১১৯টি ট্রাকে চাল-আটা বিক্রি করা হবে। এসব ট্রাকে প্রতিদিন ৪৭৬ টন খাদ্যশস্য খোলা বাজারে বিক্রি করা হবে। এর মধ্যে চাল ৪১৬ দশমিক ৫ টন চাল এবং আটা ৫৯ দশমিক ৫ টন।

এর আগে মঙ্গলবার (১৫ মার্চ) খাদ্য মন্ত্রণালয় থেকে সিটি করপোরেশনগুলোতে ওএমএস কার্যক্রমে ট্রাকসেলের সংখ্যা বাড়ানোর নির্দেশনা দিয়ে খাদ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালকের কাছে চিঠি পাঠানো হয়।

Yakub Group

ওই নির্দেশনা অনুসারে চট্টগ্রামে বাড়লো আরও সাতটি ট্রাকসেল, ঢাকা দক্ষিণ ও উত্তর সিটি কর্পোরেশনে বাড়লো আরও ২০টি ট্রাকসেল। অন্যদিকে গাজীপুর সিটি করপোরেশনে ট্রাকসেল বেড়েছে চারটি, নারায়ণগঞ্জে চারটি, বরিশালে তিনটি, রাজশাহীতে চারটি এবং খুলনায় ছয়টি। পাশাপাশি রংপুরে নতুন করে শুরু হল পাঁচটি ট্রাকসেল। ময়মনসিংহ, সিলেট ও কুমিল্লায়ও চারটি করে ট্রাকসেল শুরু হয়েছে।

ঢাকা মহানগরীতে আগের ৩০টিসহ নতুন ২০টি ট্রাকের প্রতিটিতে সাড়ে তিন টন চাল এবং ৫০০ কেজি করে আটা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। এছাড়া অন্যান্য সিটি করপোরেশনে প্রতিটি ট্রাকে তিন টন করে চাল বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৭ মার্চ) থেকে পরবর্তী নির্দেশনা না দেওয়া পর্যন্ত ওএমএস কার্যক্রমে এ অতিরিক্ত ট্রাকসেল ও বরাদ্দ বহাল থাকবে বলে চিঠিতে জানানো হয়েছে।

সিপি

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

ksrm