চট্টগ্রামে চালু হলো কমপ্লায়েন্স বেইজড স্পেশালাইজড ‘সাজিনাজ হাসপাতাল’

উদ্বোধন করলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

‘সাধ্যের মধ্যে নিশ্চিত স্বাস্থ্য সেবা’— এই স্লোগান ও স্বাস্থ্য সেবাখাতের ইতিবাচক পরিবর্তনে অঙ্গীকারাবদ্ধ হয়ে বন্দরনগরী চট্টগ্রামের বায়েজিদ লিংক রোডের আরেফিন নগরে আনুষ্ঠানিকভাবে চালু হয়েছে সাজিনাজ গ্রুপের অঙ্গ প্রতিষ্ঠান কমপ্লায়েন্স বেইজড স্পেশালাইজড হাসপাতাল ‘সাজিনাজ হাসপাতাল লিমিটেড।’

শনিবার (১১ মে) সকালে হাসপাতালের চেয়ারম্যান লায়ন শফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে রেডিসন ব্লু চট্টগ্রামের মেজবান হলরুমে এই স্পেশালাইজড হাসপাতালটির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

এতে প্রধান অতিথির বক্তব্যে পররাষ্ট্র মন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেন, ‘চট্টগ্রামে আরেকটি হাসপাতাল প্রতিষ্ঠাকে আমি স্বাগত জানাই। এই হাসপাতালে অপেক্ষাকৃত কম সামর্থ্যবান কিছু রোগীর জন্য কম মূল্যে চিকিৎসার ব্যবস্থা থাকবে এই প্রত্যাশা করবো। আমি প্রত্যাশা করবো এই হাসপাতাল এমন কিছু সেবা দেবে— যা অন্যদের থেকে আলাদা হিসেবে বিবেচিত হবে। সাধারণ জনগণের কথা ভেবে এই হাসপাতাল তার কার্যক্রম পরিচালনা ও স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিতে কাজ করবে এই প্রত্যাশা থাকবে।’

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা রেজাউল করিম চৌধুরী, সংসদ সদস্য আবদুচ ছালাম, চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (সিডিএ) চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মুহাম্মদ ইউনুস, দৈনিক আজাদীর সম্পাদক একুশে পদকপ্রাপ্ত এম এ মালেক, দৈনিক পূর্বকোণের পরিচালনা সম্পাদক জনাব জসীম উদ্দিন চৌধুরী, ইম্পেরিয়াল হাসপাতালের চেয়ারম্যান ও দৈনিক আজাদীর পরিচালনা সম্পাদক জনাব ওয়াহিদ মালেক, চট্টগ্রাম চেম্বার অফ কমার্সের প্রেসিডেন্ট ওমর হাজ্জাজ, লায়ন্স গভর্নর এমবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরী, লায়ন গভর্নর ইলেক্ট কোহিনুর কামাল, লায়ন আইপিডিজি শেখ সামছুদ্দিন আহমেদ সিদ্দিকী ও বিএমএ নেতৃবৃন্দ, হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ইঞ্জিনিয়ার সাইফুল ইসলাম, বোর্ড অব ডিরেক্টরসসহ হাসপাতালের বিভিন্ন কর্মকর্তাবৃন্দ।

দৈনিক আজাদী সম্পাদক এমএ মালেক বলেন, চিকিৎসার নামে ব্যবসা নয় মানবসেবার ব্রতই মূল লক্ষ্য হওয়া উচিৎ। এ লক্ষ্যে কাজ করলে তখন এই রোগীরাই আপনাদের মার্কেটিংয়ের কাজ করবে। আমি আশা করি সাজিনাজ হাসপাতাল সঠিকসেবার মাধ্যমে মানুষের মন জয় করবে।

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মাননীয় মেয়র রেজাউল করিম চৌধুরী বলেন, ইসলামের দীক্ষা অনুসরণ করে আমাদের চিকিৎসাসেবা অনুসরন করা উচিৎ। আমি বিশ্বাস করি শুধু বিদেশে নয় চট্টগ্রামে ও মানসম্পন্ন চিকিৎসাসেবা রয়েছে। কমপ্লায়েন্স বেইজড এই হসপিটাল তার মানসম্মত চিকিৎসাসেবার মাধ্যমে চট্টগ্রামবাসীকে বিদেশবিমুখ ও ঢাকাবিমুখ করবে এই প্রত্যাশা থাকবে হসপিটাল কর্তৃপক্ষের কাছে।

সাজিনাজ হাসপাতালের চেয়ারম্যান লায়ন শফিকুল ইসলাম বলেন, লায়নিজমে উদ্বুদ্ধ হয়ে ‘ব্যবসায়িক চিন্তাধারার বাইরে গিয়ে সেবার ব্রত’ নিয়ে সবার জন্য স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিতে ফলপ্রসূ ভূমিকা রাখার মিশন নিয়ে কাজ করছে এই হাসপাতাল। এই হাসপাতালে একজন রোগী ভর্তি থেকে শুরু করে সুস্থ হয়ে হাসপাতাল ত্যাগ করা পর্যন্ত একদল দক্ষ টিমের মাধ্যমে যাবতীয় সেবা দেওয়ার ব্যবস্থা রয়েছে। কমপ্লায়েন্স বেইজড স্পেশালাইজড এই হাসপাতাল চালু হওয়ার মাধ্যমে চট্টগ্রামে স্বাস্থ্যসেবায় একটি নতুন দিগন্তের সূচনা হলো।

উদ্যোক্তারা জানান, গতানুগতিক চিকিৎসা সেবা পদ্ধতি চালু থাকলেও কমপ্লায়েন্স বেইজড এই ধরনের হাসপাতাল চট্টগ্রামে অনন্য মাইলফলক।
হাসপাতালটির ১০টি ফ্লোর ও ২টি বেজমেন্টে রয়েছে আইটি বেইজড মাল্টিডিসিপ্লিনারি এবং ২৪/৭ স্পেশালাইজড হেলথ কেয়ার সার্ভিস। এই হাসপাতালটি সুসজ্জিত হয়েছে প্রায় ৭০টি বেড দিয়ে। এগুলোর মধ্যে রয়েছে ২০টি আইসিইউ বেড, ৫০টি কেবিন ও ইমার্জেন্সি বেড ।

আধুনিক চিকিৎসা সেবাদানের জন্য এ হাসপাতালকে প্রধানত ৫টি স্পেশালাইজড ভাগে ভাগ করা হয়েছে। যেখানে থাকবে ইমার্জেন্সি মেডিকেল বিভাগ, কিডনি ডিজিজ বিভাগ, চাইল্ড হেলথ কেয়ার, স্ত্রী ও প্রসূতি বিভাগ ও ট্রমা সেন্টার।

এছাড়াও হাসপাতালটিতে রয়েছে আইসোলেটেড গাইনি ওটিসহ ৩টি মডিউলার অপারেশন থিয়েটার যেখানে করা হবে উন্নতমানের সার্জারি। আরও ৩টিরও বেশি উন্নত মানসম্পন্ন মড্যুলার অপারেশন থিয়েটার স্থাপনের কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, সাজিনাজ হাসপাতালে রয়েছে ভিভিআইপি/ভিআইপি কেবিনসহ অন্যান্য আইসোলেটেড কেবিন, ওয়ার্ড, সার্জিক্যাল ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিট (এসআইসিইউ), নিওনেটাল ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিট (এনআইসিইউ), পেডিয়াট্রিক ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিট (পিআইসিইউ) এবং ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিট (আইসিইউ)। উন্নত এসব সেন্টার এবং ইউনিটে কাজের জন্য ব্যবহৃত হয়েছে সব অ্যাডভান্সড যন্ত্র ও অপারেটিং থিয়েটার টুলস যেগুলোর গুণগত ব্যবহারে নিশ্চিত হবে উন্নত চিকিৎসাসেবা।

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!