চট্টগ্রামে করোনা শনাক্তের হার বেড়ে ৪০ শতাংশ

0

ক্রমশ ভয়ঙ্করের দিকে যাচ্ছে চট্টগ্রামের করোনা পরিস্থিতি। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় কেউ মারা না গেলেও বেড়েছে করোনা শনাক্তের হার। ৩৯ দশমিক ৯৫ শতাংশ হারে ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হন ৯৮৯ জন। শনাক্তদের মধ্যে ৬৭৭ জন নগরের এবং ৩১২ জন বিভিন্ন উপজেলার বাসিন্দা।

এ নিয়ে চট্টগ্রামে এখন পর্যন্ত ১ লাখ ১২ হাজার ১১২ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়েছে। তাদের মধ্যে নগরের বাসিন্দা ৮১ হাজার ৮৬১ জন। বাকি ৩০ হাজার ২৫১ জন বিভিন্ন উপজেলার। আক্রান্তদের মধ্যে এখন পর্যন্ত মোট ১ হাজার ৩৪৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। এরমধ্যে ৭২৮ জন নগরের। আর বিভিন্ন উপজেলায় মৃত্যু হয়েছে ৬১৫ জনের।

সোমবার (২৪ জানুয়ারি) সকালে চট্টগ্রাম সিভিল সার্জন কার্যালয় থেকে প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।

সিভিল সার্জন ডা. মোহাম্মদ ইলিয়াছ চৌধুরী জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামের বিভিন্ন ল্যাবে দুই হাজার ৪৭৫ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৯৮৯ জনের দেহে করোনার জীবাণু শনাক্ত হয়।

তিনি আরও জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ল্যাবে ৯৭ জন, ফৌজদারহাট বিআইটিআইডি ল্যাবে ১১৬ জন, চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি ইউনিভার্সিটি ল্যাবে ৮৫ জন, অ্যান্টিজেন টেস্টে ১৩৫ জন, ইমপেরিয়াল হাসপাতাল ল্যাবে ১৬২ জন, চট্টগ্রাম মা ও শিশু হাসপাতাল ল্যাবে ৮৮ জন, জেনারেল হাসপাতাল আরটিআরএল ল্যাবে ১৯ জন, মেডিকেল সেন্টার হাসপাতাল ল্যাবে ৩৩ জন, ইপিক হেলথকেয়ার ল্যাবে ১৬১ জন মেট্রোপলিটন হাসপাতাল ল্যাবে ৫৩ জন এবং এশিয়ান স্পেশালাইজড হাসপাতাল ল্যাবে ৪০ জনের শরীরে করোনার সংক্রমণ শনাক্ত হয়।

উপজেলায় শনাক্ত ৩১২ জনের মধ্যে পটিয়ায় সর্বাধিক ৬২ জন করে রয়েছেন। এছাড়া, হাটহাজারী ও সীতাকুণ্ড উপজেলায় ৪৪ জন করে, রাউজানে ৩৪ জন, সাতকানিয়ায় ২২ জন, ফটিকছড়ি ও চন্দনাইশে ২১ জন করে, রাঙ্গুনিয়ায় ১৮ জন, বোয়ালখালীতে ১৪ জন, মিরসরাই ও আনোয়ারায় ৮ জন করে, লোহাগাড়ায় ৭ জন, বাঁশখালীর ৫ এবং সন্দ্বীপ উপজেলায় ৪ জন করোনা শনাক্ত হয়েছেন।

এমএহক

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm