চট্টগ্রামে করোনার তৃতীয় ঢেউয়ের হাতছানি, লাফিয়ে বাড়ছে শনাক্ত

শনাক্তের হার বেড়ে ১২.৪০ শতাংশ

0

চট্টগ্রামে লাগামহীন ঘোড়ার মতো লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে করোনা। যেভাবে দ্রুত বাড়ছে করোনা তাতে করে তৃতীয় ঢেউয়ের হাতছানি দেখা যাচ্ছে চট্টগ্রামে। সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় আরও ২২২ জনের করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে চট্টগ্রামে। শনাক্তদের মধ্যে ১৭৪ জন নগরের ও ৪৮ জন বিভিন্ন উপজেলার বাসিন্দা। তবে এই সময়ে কারও মৃত্যু হয়নি।

এ নিয়ে চট্টগ্রামে মোট শনাক্তের সংখ্যা দাঁড়ালো এক লাখ তিন হাজার ৬৩২ জনে। এদের মধ্যে নগরের বাসিন্দা ৭৫ হাজার ১২৫ জন। বাকি ২৮ হাজার ৫০৭ জন বিভিন্ন উপজেলার। আক্রান্তদের মধ্যে এখন পর্যন্ত মোট ১ হাজার ৩৩৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে ৭২৫ জন নগরের, বিভিন্ন উপজেলায় মৃত্যু হয়েছে ৬১০ জনের।

বুধবার (১২ জানুয়ারি) সকালে চট্টগ্রাম সিভিল সার্জন কার্যালয় থেকে প্রকাশিত প্রতিবেদনে এসব তথ্য জানা গেছে।

সিভিল সার্জন ডা. মোহাম্মদ ইলিয়াছ চৌধুরী জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামের বিভিন্ন ল্যাবে এক হাজার ৭৯০ জনের নমুনা পরীক্ষায় ২২২ জনের দেহে করোনার জীবাণু শনাক্ত হয়। নমুনা পরীক্ষায় সংক্রমণের হার ১২ দশমিক ৪০ শতাংশ। আবার

তিনি আরও জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ল্যাবে দুজন, চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ল্যাবে ৩১ জন, অ্যান্টিজেন টেস্টে ২৭ জন, ইমপেরিয়াল হাসপাতাল ল্যাবে ৪২ জন, শেভরন হাসপাতাল ল্যাবে ২৬ জন, চট্টগ্রাম মা ও শিশু হাসপাতাল ল্যাবে ছয়জন, জেনারেল হাসপাতাল আরটিআরএল ল্যাবে ২৬ জন, মেডিকেল সেন্টার হাসপাতাল ল্যাবে ছয়জন, ইপিক হেলথকেয়ার ল্যাবে ২১ জন, ল্যাব এইড হাসপাতাল ল্যাবে দুজন, মেট্রোপলিটন হাসপাতাল ল্যাবে ২০ জন, এশিয়ান স্পেশালাইজড হাসপাতাল ল্যাবে নয়জন ও শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ল্যাবে চারজনের শরীরে করোনার সংক্রমণ শনাক্ত হয়।

উপজেলায় শনাক্ত ৪৮ জনের মধ্যে হাটহাজারীতে সর্বোচ্চ ১২ জন। এছাড়া, রাউজান ও ফটিকছড়িতে ৮ জন করে, সাতকানিয়ায় ৬ জন, রাঙ্গুনিয়ায় ৫ জন, মিরসরাইয়ে ৩ জন, বাঁশখালী ও সীতাকুণ্ডে ২ জন করে এবং পটিয়া ও বোয়ালখালীতে জন করে শনাক্ত হয়েছেন।

এমএহক

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm