চট্টগ্রামে এলো ভারতীয় কোস্ট গার্ডের দুই জাহাজ

সাত দিনের শুভেচ্ছা সফরে বাংলাদেশে এসেছে ভারতীয় কোস্ট গার্ডের দুইটি জাহাজ ‘শৌর্য ও ‘রাজবী’। বাংলাদেশ-ভারত সমুদ্রসীমার শূন্যরেখা থেকে বাংলাদেশ কোস্ট গার্ডের জাহাজ ‘কামরুজ্জামান’ জাহাজ দুটিকে স্বাগত জানায় এবং চট্টগ্রাম বহির্নোঙর পর্যন্ত এসকর্ট দিয়ে নিয়ে আসে।

শুক্রবার (১৩ জানুয়ারি) বিকেল পৌনে চারটার দিকে বহির্নোঙর এলাকায় ‘বিসিজিএস শ্যামল বাংলা’ ভারতীয় জাহাজ দুটিকে স্বাগত জানায় এবং এসকর্ট দিয়ে চট্টগ্রাম বন্দর জেটিতে নিয়ে আসে। এ সময় কোস্ট গার্ডের সুসজ্জিত বাদক দল ঐতিহ্য ও রীতি অনুযায়ী বাদ্য বাজিয়ে জাহাজ দুটিকে অভিবাদন জানায়।

কোস্ট গার্ড সদর দফতরের মিডিয়া কর্মকর্তা লেফটেন্যান্ট কমান্ডার আব্দুর রহমান এ তথ্য জানান।

জানা গেছে, ভারতীয় কোস্ট গার্ড জাহাজ দুটিতে ডেপুটি ইনস্পেক্টর জেনারেল রবীন্দ্র কুমার ও ভেঙ্কটেশ্বর থাপলিয়াল অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করছেন।

এ সফরে আঞ্চলিক সহযোগিতা বৃদ্ধি, সাগরে অবৈধ কর্মকাণ্ড বন্ধে পারস্পারিক সম্পর্ক উন্নয়ন, প্রশিক্ষণ বিনিময় ও উভয় দেশের মধ্যে সৌহার্দ ও ভ্রাতৃত্বপূর্ণ সম্পর্ক বজায় রাখার লক্ষ্যে বাংলাদেশ কোস্ট গার্ড ও ভারতীয় কোস্ট গার্ডের মধ্যকার স্বাক্ষরিত চুক্তি অনুযায়ী প্রতিবছর ভারত ও বাংলাদেশ পর্যায়ক্রমে কোস্ট গার্ডের জাহাজগুলো শুভেচ্ছা সফর করে আসছে।

শুভেচ্ছা সফরের অংশ হিসেবে চট্টগ্রামে আসা জাহাজ দুটির অধিনায়করা কমান্ডার চট্টগ্রাম নেভাল এরিয়া ও জোনাল কমান্ডার পূর্ব জোনের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করবেন।

Yakub Group

এছাড়াও বাংলাদেশ কোস্ট গার্ড সদস্যদের পেশাগত দক্ষতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে পরিবেশদূষণ রক্ষায় (ওয়াটার ও অয়েল) ভারতীয় কোস্টগার্ডে ভারতীয় কোস্ট গার্ড জাহাজ দুটিতে ব্যবহৃত সরঞ্জামাদি ও কর্মপরিধির ওপর একটি বিশেষ ব্যবহারিক ও তাত্ত্বিক প্রশিক্ষণ কর্মসূচি, মতবিনিময় ও সেমিনার অনুষ্ঠিত হবে।

সফরকালে ভারতের জাহাজ দুটির কর্মকর্তা ও নাবিকরা চট্টগ্রামের বিভিন্ন দর্শনীয় ও ঐতিহাসিক স্থান পরিদর্শন করবেন। পাশাপাশি দুই দেশের কোস্ট গার্ডের মধ্যে একটি প্রীতি ভলিবল ও বাস্কেটবল প্রতিযোগিতাও অনুষ্ঠিত হবে।

সফরকালে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অধীন পুলিশ, বিজিবি, র‌্যাব, আনসার সদস্য এবং নৌবাহিনী স্কুল অ্যান্ড কলেজ চট্টগ্রামের মনোনীত শিক্ষার্থীরা জাহাজ দুটি পরিদর্শন করবেন।

এই সফরের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ ও ভারতীয় কোস্ট গার্ড তথা দুই দেশের সার্বিক সহযোগিতা ও পারস্পারিক সম্পর্ক আরও সুদৃঢ় হবে বলে আশা করছেন সংশ্লিষ্টরা।

এএস/সিপি

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

ksrm