চট্টগ্রামের হাবিব গ্রুপের ২৮০ শতক জমি ক্রোকের নির্দেশ

হাবিব গ্রুপের মালিকানাধীন হাবিব স্টিল মিলের চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডের ২৮০ শতক জমি ক্রোকের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির পর ৯১ কোটি টাকা খেলাপি ঋণের বিপরীতের ইস্টার্ন ব্যাংকের করা এক মামলায় এ নির্দেশ দেওয়া হয়।

বুধবার (১৪ সেপ্টেম্বর) চট্টগ্রাম অর্থ ঋণ আদালতের বিচারক মুজাহিদুর রহমান এ নির্দেশ দেন।

অর্থঋণ আদালতের বেঞ্চ সহকারী রেজাউল করিম বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ‘হাবিব গ্রুপের প্রতিষ্ঠান হাবিব স্টিল লিমিটেডের কাছে ৯০ কোটি ৯৮ লাখ টাকা পাবে ইস্টার্ন ব্যাংক আগ্রাবাদ শাখা। এ পাওনা আদায়ে চলতি বছরের ৫ জুন চট্টগ্রাম অর্থঋণ আদালতে মামলা দায়ের করে ব্যাংক কর্তৃপক্ষ। মামলায় প্রতিষ্ঠানটির স্বত্বাধিকারী মো. আব্দুল কাদের, ইয়াসিন আলী ও ইয়াকুব আলীকে বিবাদি করা হয়।’

তিনি বলেন, ‘মামলায় বাদিপক্ষের আবেদনের প্রেক্ষিতে আদালত হাবিব স্টিলের সীতাকুণ্ডের জাহানাবাদ এলাকার ২৮০ শতক জমি ক্রোকের নির্দেশ দেন আদালত।’

এছাড়াও চলতি বছরের ৮ আগস্ট চেক প্রতারণার অভিযোগে হাবিব গ্রুপের অঙ্গ প্রতিষ্ঠান রিজেন্ট টেক্সটাইল মিলস লিমিটেডের চেয়ারম্যানসহ চার পরিচালকের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন আদালত।

Yakub Group

চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট ৬ষ্ঠ আদালতের বিচারক মেহনাজ রহমান এ আদেশ দেন। আইডিএলসি ফাইন্যান্স লিমিটেডের মামলার প্রেক্ষিতে আদালত এ আদেশ দেন।

আদেশে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত প্রতিষ্ঠান রিজেন্ট টেক্সটাইলের চেয়ারম্যান ইয়াকুব আলী, ব্যবস্থাপনা পরিচালক সালমান হাবিব, পরিচালক ইয়াসিন আলী, পরিচালক মাশরুপ হাবিব, পরিচালক তানভীর হাবিবকে গ্রেপ্তারের আদেশ দেওয়া হয়।

জানা গেছে, আইডিএলসি ফাইন্যান্স লিমিটেড আগ্রাবাদ শাখার তিনটি মামলায় এক কোটি ৮০ লাখ টাকা আদায়ের জন্য রিজেন্ট টেক্সটাইল মিলস লিমিটেডের চেয়ারম্যানসহ চার পরিচালকের বিরুদ্ধে ২০২১ সালে চেক প্রতারণার অভিযোগে মামলা করা হয়। আদালতে হাজির হওয়ার জন্য আসামিদের বিরুদ্ধে সমন ইস্যু করা হলেও তারা আদালতে উপস্থিত হননি।

সমন জারি হয়ে ফেরত আসলেও আসামিরা আদালতে উপস্থিত না হওয়ায় মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট ষষ্ঠ আদালত তাদের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা ইস্যুর আদেশ দেন।

আইএমই/ডিজে

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

ksrm