চট্টগ্রামের মেয়ে গোয়া ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে, চেনেন দেবের এই নায়িকাকে?

জন্ম চট্টগ্রামে। চট্টগ্রামেই বড় হয়ে ওঠা। চার বোন, এক ভাইয়ের মধ্যে সবার বড় তিনি। পেশায় এই ফ্যাশন ডিজাইনারের সিনেমায় এসে পড়া হঠাৎই।

ভারতের গোয়ায় ৫৩তম আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব (আইএফএফআই) শুরু হচ্ছে আজ রোববার (২০ নভেম্বর) থেকে। চলবে ২৮ নভেম্বর পর্যন্ত। দেশ-বিদেশের চলচ্চিত্র শিল্পীরা আমন্ত্রণ পেয়েছেন এই অনুষ্ঠানে। তেমনই আমন্ত্রণে এই উৎসবে যোগ দিচ্ছেন বাংলাদেশের নবাগতা নায়িকা চট্টগ্রামের সন্তান জাহারা মিতু।

চট্টগ্রামের মেয়ে গোয়া ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে, চেনেন দেবের এই নায়িকাকে? 1

বেশ কয়েকটি ছবিতে কাজ করলেও এখনও পর্যন্ত মিতুর একটি সিনেমাও মুক্তি পায়নি। কিন্তু তারপরেও ভারতের চলচ্চিত্র উৎসবে তাকে আমন্ত্রণ জানানোয় কিছুটা বিস্মিত মডেল-অভিনেত্রী। কী কারণে তাঁকে আমন্ত্রণ জানানো হল?

মিতু নিজেও জানিয়েছেন, তাঁর একটি সিনেমাও এখনও মুক্তি পায়নি। তার পরেও এই সরকারি আমন্ত্রণে তিনি খুব খুশি। ফেসবুক-ইন্সটাগ্রামের সৌজন্যেই এই আমন্ত্রণ পেয়েছেন মিতু।

চট্টগ্রামের মেয়ে গোয়া ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে, চেনেন দেবের এই নায়িকাকে? 2

Yakub Group

বস্তুত, এ বার চলচ্চিত্র উৎসবে দেশ-বিদেশের বেশ কয়েক জন নতুন মুখকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে মিতুর সঙ্গে যোগাযোগ করে তাঁকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে।

গত অক্টোবর মাসে দিল্লির ‘মিস সুপার মডেল ওয়ার্ল্ড ওয়াইড ২০২২’ প্রতিযোগিতায় বিচারক হিসাবে যোগ দিয়েছিলেন বাংলাদেশের এই নবাগত নায়িকা। নিজেও ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ ২০১৭’ সুন্দরী প্রতিযোগিতায় রানার-আপ হয়েছিলেন।

চট্টগ্রামের মেয়ে গোয়া ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে, চেনেন দেবের এই নায়িকাকে? 3

ওই প্রতিযোগিতার পরেই একের পর এক মিউজিক ভিডিওতেও কাজ করার ডাক পান মিতু। তার পর ফিল্মি দুনিয়ায় তাঁর এসে পড়া আচমকাই।

বাংলাদেশের এই নায়িকার পুরো নাম ফাতেমা তুজ জাহারা মিতু। তাঁর জন্ম চট্টগ্রামে। চট্টগ্রামেই বড় হয়ে ওঠা। চার বোন, এক ভাইয়ের মধ্যে সবার বড় তিনি। এখন মা এবং ভাই-বোনদের নিয়েই নবাগত নায়িকার সংসার। বেশ কয়েক বছর আগে বাবাকে হারিয়েছেন।

২০১৭ সালে ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের মাঝেই ফ্যাশন ডিজাইন নিয়ে স্নাতক পাশ করেন মিতু। তার পর স্নাতকোত্তর পড়তে চলে যান চিনে। এ হেন মিতু এখনও নিজেকে প্রথমে ফ্যাশন ডিজাইনার হিসাবেই পরিচয় দেন। আর তিনি বলে থাকেন, নায়িকা নন, অভিনেত্রী হতে এই দুনিয়ায় পা রেখেছেন তিনি।

মিতুর অভিনয়ে হাতেখড়ি ওই ২০১৭ সালেই। সে বছর ডিসেম্বরে একটি নাটকে অভিনয় করেন তিনি। তারপর উপস্থাপক হিসাবেও বাংলাদেশে বেশ জনপ্রিয় মিতু। বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল)-এর অনুষ্ঠানে তাকে উপস্থাপকের ভূমিকায় দেখতে পাওয়া গিয়েছে। এ ছাড়াও বিভিন্ন জনপ্রিয় অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেছেন।

সিনেমা জগতে মিতুর এসে পড়া আচমকাই। এমনকি একাধিক সিনেমার অফার প্রথমে ফিরিয়ে দিয়েছিলেন তিনি। তাঁর প্রথম সিনেমা ‘আগুন’। যদিও এই সিনেমা মুক্তি পায়নি।

শোনা যায়, শাকিব খানের বিপরীতে অভিনয় করার প্রস্তাব তিনবারের বেলায় গ্রহণ করেছেন মিতু। তিনি নাকি ভেবে উঠতে পারছিলেন না, চলচ্চিত্র দুনিয়ায় আসবেন কি না।

মিতু বলেছেন, তিনি নায়িকা নন, অভিনেত্রী হতে এসেছেন। দর্শকরা তাঁকে ভাল অভিনেত্রী হিসাবে মনে রাখবেন, এটাই তাঁর ঈপ্সা। মিতুর কথায়, ‘যে নায়িকাদের অভিনয়গুণ ছিল, আমরা তাঁদের কথা আমরা মনে রেখেছি। কিন্তু তাঁদের সমসাময়িক অনেকে নায়িকা ছিলেন। তাঁদের আমরা ভুলে গিয়েছি। তাই আমি অভিনেত্রী হতে চাই।’

উপস্থাপনা এবং টিভি নাটকে অভিনয় করলেও ছবির জন্য প্রথম বার ক্যামেরার সামনে মিতু দাঁড়িয়েছেন শাকিব খানের বিপরীতে। শাকিবের সঙ্গে কাজ করাকে নিজের সৌভাগ্য বলে মনে করছেন মিতু। এখনও সে ছবির শুটিং বাকি আছে বলে খবর।

ভারতের কলকাতায়ও কাজ করে ফেলেছেন মিতু। তাঁর বিপরীতে আবার দেব। ‘কমান্ডো’ নামে একটি সিনেমায় দেবের বিপরীতে দেখা যাবে তাঁকে। ছবিটির পরিচালনার দায়িত্বে রয়েছেন শামীম আহমেদ রনি। মিতু জানান, ছবিতে গোয়েন্দা সংস্থার এক অফিসারের ভূমিকায় দেখা যাবে তাঁকে।

একাধিক সিনেমার চুক্তিতে সই করেছেন। তবে সবগুলিরই কাজ চলছে। তার মধ্যে ভারতের চলচ্চিত্র উৎসবে তিনি আমন্ত্রিত হওয়ায় উচ্ছ্বসিত। মিতু এ প্রসঙ্গে বলেন, ‘এই উৎসবে পৃথিবীর বহু দেশের সিনেমা প্রদর্শিত হবে। প্রযোজক, পরিচালকদের পাশাপাশি ওই সব দেশের নায়ক ও নায়িকাদেরও আমন্ত্রণ জানিয়েছে ভারত সরকার। আমি ভাগ্যবান, ভারত সরকারের পাঠানো আমন্ত্রণপত্র পেয়েছি। কারণ, এখনও আমার একটি সিনেমাও মুক্তি পায়নি। তার আগেই এ ধরনের উৎসবে আমাকে সরকারিভাবে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। এই ভাল লাগার কথা ভাষায় প্রকাশ করার মতো নয়।’

মিতু কি প্রেম করেন? তিনি কি একা থাকেন? মিতু জানান, প্রেমের অভিজ্ঞতা নাকি তাঁর খুব খারাপ। আপাতত তিনি একাই থাকতে চান। তবে কিছু দিন আগে নায়িকার একটি ফেসবুক পোস্ট ভাইরাল হয়ে গিয়েছিল।

ফেসবুক পোস্টে মিতু লিখেছিলেন, ‘‘মনে হয় প্রেমে পড়েছি। কিছুই বুঝতে পারছি না। কিন্তু প্রতিবার ভাল লাগছে।’’ পরে তিনি জানান, একটি গানের কথা ভাল লেগেছিল বলেই ওই পোস্ট। আদতে তিনি একা থাকতে পছন্দ করেন।

অভিনয়ের পাশাপাশি মিতু ফ্যাশন ডিজাইনার। আবার পৈতৃক ব্যবসাও দেখাশোনা করেন। সব সময় কর্মব্যস্ত তিনি। কাজের সূত্রে প্রায়ই বাড়ির বাইরে থাকতে হয়।

অনেকের সঙ্গে পরিচয় হয়, জানাশোনা হয়। তবে মিতুর জীবনের দর্শন নাকি, একটা পর্যায়ে সবাইকে একা থাকতে হয়। তাই তিনিও সম্পর্কে জড়াননি। আপাতত নায়িকা হিসাবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করার কাজে মন দিয়েছেন তিনি।

আনন্দবাজার পত্রিকা অবলম্বনে

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

ksrm