চট্টগ্রামের মেট্রো ডায়াগনস্টিকের রিএজেন্টে মেয়াদ নেই, লাখ টাকা জরিমানা

চট্টগ্রাম নগরীর গোলপাহাড়ের মেট্রো ডায়াগনস্টিক সেন্টারে পাওয়া গেছে মেয়াদোত্তীর্ণ রিএজেন্ট। এছাড়া চার বছর আগে মেয়াদ ফুরোনো কেমিক্যালও পাওয়া গেছে প্রতিষ্ঠানটিতে। এতদিন ধরে এসব মেয়াদোত্তীর্ণ জিনিস দিয়েই রোগীদের পরীক্ষা-নিরীক্ষা করছিল তারা।

রোববার (৪ সেপ্টেম্বর) দুপুরে ভোক্তা অধিদপ্তরের অভিযানে ধরা পড়ে মেট্রো ডায়াগনস্টিক সেন্টারের এসব অনিয়ম। অভিযানে তাদের এক লাখ টাকা জরিমানা করা হয়।

ভোক্তা অধিকারের কর্মকর্তারা জানান, ডায়াগনস্টিক সেন্টারের স্টোর রুম থেকে বের করা হয়েছে ইউরিন, ব্লাড টেস্টসহ এইচ আইভির মত স্পর্শকাতর পরীক্ষার মেয়াদোত্তীর্ণ রিএজেন্ট। আবার কিছু কিছু রিএজেন্ট পাওয়া গেছে খোলা অবস্থায়। যেগুলোর ওপর ধুলোর আস্তর পড়েছে। ২০১৮ সালে মেয়াদ ফুরানো কেমিক্যালও পাওয়া যায় ল্যাবরেটরিতে।

এছাড়া ল্যান্ডস্টেইন ব্লাড ব্যাংক অ্যান্ড ট্রান্সফিউশন সেন্টার নামে একটি প্রতিষ্ঠানে ব্লাড সংগ্রহের পর তাতে মেয়াদ না লেখায় ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। একই অভিযানে সুফিয়া হোটেলকে অপরিষ্কার ও নোংরা পরিবেশে খাবার তৈরির দায়ে ১২ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

চট্টগ্রাম ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মোহাম্মদ ফয়জুল্লাহ বলেন, ‘ডায়াগনস্টিক সেন্টারটির প্যাথলজি ল্যাবে মেয়াদোত্তীর্ণ রিএজেন্ট পাওয়া গেছে। যা দিয়ে কোনো পরীক্ষা করলে তা ভুল রিপোর্ট পাওয়া যাবে। প্রতিষ্ঠানের এমন অপরাধ অত্যন্ত গুরুতর। তাই প্রতিষ্ঠানটিকে এক লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। এছাড়া রক্ত সংগ্রহ করার পর তাতে মেয়াদোত্তীর্ণের তারিখ না লেখায় ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয় ল্যান্ডস্টেইন ব্লাড ব্যাংককে।‘

Yakub Group

অভিযানে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক আনিছুর রহমান, চট্টগ্রাম জেলা কার্যালয়ের সহকরী পরিচালক নাসরিন আক্তার।

আরএম/ডিজে

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

ksrm