চট্টগ্রামের বাসিন্দা ঢাকায় ধরা পিনাকীর বিরুদ্ধে পুলিশের মামলায়

ফ্রান্সে অবস্থানরত লেখক ও অনলাইন অ্যাকটিভিস্ট পিনাকী ভট্টাচার্যের বিরুদ্ধে ঢাকায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা হয়েছে। এ মামলায় চট্টগ্রামের বাসিন্দা এক ব্যক্তিকে ঢাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এ দুজন ছাড়াও মামলায় আসামি করা হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসকারী মুশফিকুল ফজল আনসারী নামের আরও একজনকে।

ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্রান্স ন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি) বিভাগ গত ১৫ অক্টোবর রাজধানীর রমনা থানায় এই মামলা দায়ের করে। মামলায় পিনাকী ভট্টাচার্যসহ তিনজনের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করার চক্রান্তে জড়িত থাকার অভিযোগ আনা হয়েছে।
এ মামলায় চট্টগ্রামের বাসিন্দা মফিজুর রহমান গ্রেপ্তার হয়ে ইতিমধ্যে কারাগারে রয়েছেন।

গ্রেপ্তার মফিজুর রহমানের গ্রামের বাড়ি চট্টগ্রামের বাঁশখালীর ছনুয়া ইউনিয়নের খুদুকখালী গ্রামে।

ডিএমপির গণমাধ্যম ও গণসংযোগ বিভাগের উপকমিশনার (ডিসি) মো. ফারুক হোসেন সাংবাদিকদের জানান, পিনাকী ভট্টাচার্য ফ্রান্সে অবস্থান করে ইউটিউবে তার নিজস্ব একটি চ্যানেল থেকে বিভিন্ন সময় সরকারবিরোধী অপপ্রচার করে যাচ্ছেন। তিনি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, সজীব ওয়াজেদ জয়সহ প্রধানমন্ত্রীর পরিবার নিয়ে বিভিন্ন সময় বিদ্বেষমূলক কথাবার্তা প্রচার করে যাচ্ছেন। তাঁর পূর্ণাঙ্গ ঠিকানা পেলে ইন্টারপোলের মাধ্যমে দেশে ফিরিয়ে এনে বিচারের মুখোমুখি করা হবে।

মামলায় বলা হয়েছে, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে দেওয়া একটি পোস্ট গত ১৪ অক্টোবর নজরে আসে কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্রান্স ন্যাশনাল ক্রাইম বিভাগের। ওই পোস্টে পুলিশ সদস্যদের সম্পর্কে বিকৃত তথ্য প্রচারের অভিযোগ আনা হয়েছে। ওই ফেসবুক পোস্টের সূত্র ধরে ১৫ অক্টোবর পল্লবীর বাসা থেকে চট্টগ্রামের বাসিন্দা মফিজুর রহমানকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। পরে পুলিশ মফিজুরের দুটি মোবাইল জব্দ করে।

মামলায় বলা হয়েছে, আসামি মফিজুর রহমান তার ভুয়া ফেসবুক আইডির মেসেঞ্জারের মাধ্যমে বিভিন্ন ব্যক্তির সঙ্গে যোগাযোগ করেন। এই তালিকায় আছেন পিনাকী ভট্টাচার্য ও মুশফিকুল ফজল আনসারী। মিরপুরে পুলিশ বাহিনীর একটি অভিযানের ঘটনাকে বিকৃতভাবে প্রচার করা হয়। সেই তথ্য ও ছবি পাঠানো হয় পিনাকী ভট্টাচার্যের ফেসবুক মেসেঞ্জারে। এরপর সেগুলো সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। এসব আলামত জব্দ করেছে পুলিশ।

Yakub Group

সিপি

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

ksrm