চট্টগ্রামের পুলিশ এবার ৫ দিনের রিমান্ডে নিলো আওয়ামী লীগ নেতা সাজ্জাতকে

ফেসবুকে বিদ্যুৎ বড়ুয়াকে প্রশ্ন ছুঁড়ে স্ট্যাটাস

0

ঢাকায় আটকের পর এবার চট্টগ্রামের পুলিশ পাঁচদিনের রিমান্ডে পেয়েছে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সংস্কৃতি বিষয়ক উপ-কমিটির সদস্য ও চট্টগ্রাম করোনা আইসোলেশন সেন্টারের উদ্যোক্তা সাজ্জাত হোসেনকে।

সোমবার (১৯ জুলাই) বিকেলে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট সরোয়ার জাহানের আদালত সাজ্জাত হোসেনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। এদিন দুপুরে কোতোয়ালী থানা পুলিশ সাজ্জাতকে আদালতে হাজির করে ৭ দিনের রিমান্ডের আবেদন জানায়।

এর আগে রোববার (১৮ জুলাই) ভোর সাড়ে তিনটার দিকে ডিএমপির রূপনগর থানার সহায়তায় তার বোনের বাসা থেকে আটক করে তাকে মিন্টু রোডের ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) কার্যালয়ে নিয়ে যাওয়া হয়।

আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া ও তার ছোট ভাই আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্য বিষয়ক উপ-কমিটির সদস্য ডা. বিদ্যুৎ বড়ুয়ার বিরুদ্ধে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ‘মানহানিকর স্ট্যাটাস’ দেওয়ার অভিযোগে গত ১৩ জুলাই চট্টগ্রাম নগরের কোতোয়ালী থানায় ও জেলার সাতকানিয়া থানায় পৃথক দুটি মামলা দায়ের করা হয় সাজ্জাতের বিরুদ্ধে।

সাজ্জাত হোসেনকে রিমান্ডে নেওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কোতোয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নেজাম উদ্দিন।

Yakub Group

চট্টগ্রাম প্রতিদিনকে এই ওসি বলেন, ‘বিদ্যুৎ বড়ুয়া একজন করোনাযোদ্ধা। করোনাকালীন এ সময়ে তার অবদান চট্টগ্রামবাসী ভুলবে না। মৃত্যুকে পরোয়া না করে দিন-রাত যে মানুষটি করোনার বিরুদ্ধে লড়ে যাচ্ছেন, তাকে নিয়ে এসব লেখা কেন লিখলেন সাজ্জাদ হোসেন— সেটাই রিমান্ডে এনে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করব। তিনি নিজের ইচ্ছায় লিখেছেন, নাকি কেউ প্রভাবিত করেছেন তা জানার চেষ্টা করা হবে সাজ্জাত হোসেনের কাছ থেকে।’

ওসি নেজাম আরও বলেন, ‘আমরা আদালতে ৭ দিনের রিমান্ড চেয়ে আবেদন করেছিলাম। আদালত ৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন।’

প্রসঙ্গত, গত ১২ জুলাই আওয়ামী লীগ নেতা সাজ্জাত তার ফেসবুক আইডিতে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির স্বাস্থ্য বিষয়ক উপ-কমিটির সদস্য ডাক্তার বিদ্যুৎ বড়ুয়াকে ‘ভুয়া জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ!’ আখ্যা দিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে একটি স্ট্যাটাস দেন বলে অভিযোগ করা হয়।

এর পরদিন এ নিয়ে চট্টগ্রামের সাতকানিয়া থানায় সাজ্জাত হোসেনসহ দুজনের নামে মামলা করেন দক্ষিণ জেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতি ও সাতকানিয়া পৌরসভার মেয়র মোহাম্মদ জোবায়ের। একইদিন সিএমপির কোতোয়ালী থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে সাজ্জাত হোসেনের বিরুদ্ধে আরও একটি মামলা দায়ের করেন চট্টগ্রাম ফিল্ড হাসপাতালের স্বেচ্ছাসেবক শেখ মোহাম্মদ ফারুক চৌধুরী।

আইএমই/সিপি

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm