চট্টগ্রামের পতেঙ্গায় নিয়ম না মেনে রাস্তায় পশুরহাট, সিটি কর্পোরেশনকে ‘বুড়ো আঙুল’ দুই ইজারাদারের

নিয়ম না মেনে নির্দিষ্ট স্থানের বাইরে বাজার বসিয়েছে দুই পশুরহাট ইজারাদার। চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন তাদের স্থান নির্দিষ্ট করে হাট ইজারা দিলেও তারা সেই নিয়মের তোয়াক্কায় করছে না। এতে জনদুর্ভোগ বেড়েছে। গাড়ি চলাচল ব্যাঘাত ঘটছে, বাড়ছে যানজটও।

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের হাট দুটি হলো পতেঙ্গা থানার টিএসপি মাঠ ও কাটগড় মুসলিমাবাদ সিআইপি জসিমের মাঠের অস্থায়ী পশুরহাট।

সিটি কর্পোরেশন সূত্রে জানা গেছে, চলতি বছরে ৩০ মে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের সর্বোচ্চ দরদাতা হিসেবে পতেঙ্গা থানার টিএসপি মাঠে অস্থায়ী কোরবানি পশুরহাটের ইজারা পেয়েছেন মো. সাইফুদ্দিন লিজয়। ইজারার মূল্য ছিল ১৪ লাখ ৬০ হাজার ৫০০ টাকা।

একইদিনে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের সর্বোচ্চ দরদাতা হিসেবে পতেঙ্গা থানার কাটগড় মুসলিমাবাদ সিআইপি জসিমের মাঠে অস্থায়ী কোরবানি পশুরহাটের ইজারা পেয়েছেন শহীদুল হক চৌধুরী। যার ইজারার মূল্য মাত্র ২ লাখ টাকা।

সরেজমিন গিয়ে দেখা গেছে, টিএসপি মাঠের হাটটি বসানো হয়েছে স্টিলমিল খালপাড় রোড পর্যন্ত। ইতোমধ্যে ওই পশুরহাটের নির্মাণকাজ সম্পন্ন করাসহ বেচাকেনা শুরু করে দিয়েছে ইজারাদার কর্তৃপক্ষ। আর সিআইপি জসিমের মাঠের হাটটি বসানো হয়েছে পতেঙ্গা থানার আউটার রিং তীরবর্তী স্থানে তাজু চৌধুরী বিল্ডিং সংলগ্ন মাঠে।

পতেঙ্গা স্টিলমিল এলাকায় তৈরি হয়েছে চরম যানজট। একদিকে কর্ণফুলী ইপিজেডসহ স্টিলমিল এলাকায় অবৈধ ফুটপাথের জঞ্জাল, অপরদিকে পশুরহাট—এতে ব্যাহত হচ্ছে যান চলাচল। এর মধ্যে টিএসপি গেইট পশুরহাট স্টিলমিল সংলগ্ন খালপাড়ে বসাতে জনদুর্ভোগ চরমে পৌঁছেছে।

জানতে চাইলে পতেঙ্গা থানার সিআইপি জসিমের মাঠে পশুরহাট ইজারাদার শহীদুল হক চৌধুরী বলেন, ‘সিআইপি জসিমের মাঠে আমি ইজারা পেয়েছি।’

সিটি কর্পোরেশন নির্দিষ্ট করে দেওয়া জায়গায় পশুরহাট না বসিয়ে কেন তাজু চৌধুরী বিল্ডিং সংলগ্ন মাঠ এলাকায় বসাচ্ছেন—এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি কোনও উত্তর না দিয়ে মুঠোফোনের সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেন।

জানতে চাইলে ৪০ নম্বর ওয়ার্ডের টিএসপি মাঠের কোরবানি পশুরহাটের ইজারাদার মো. সাইফুদ্দিন লিজয় বলেন, ‘ সিটি কর্পোরেশন নির্দিষ্ট করে টিএসপি মাঠ বলা হলেও অনেক আগে থেকে এভাবে পশুরহাট বসছে খালপাড় রোডে। হাট বসার কারণে রাস্তায় গাড়ির চলাচলের সমস্যা হবে না।’

জানতে চাইলে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের এস্টেট অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রেজাউল করিম বলেন, ‘বিষয়টি আমি দেখছি।’

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!