আক্রান্ত
১১৪৯০
সুস্থ
১৩৫৫
মৃত্যু
২১৬

চট্টগ্রামের করোনা পরিস্থিতিতে ২৪ বিশিষ্ট নাগরিকের ৩ প্রস্তাব

2
high flow nasal cannula – mobile

চট্টগ্রামের করোনা পরিস্থিতির আশংকাজনক অবনতি ঘটায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন বিশিষ্ট নাগরিকরা। পাশাপাশি করোনা চিকিৎসার জন্য সরকার ঘোষিত হাসপাতালগুলো অবিলম্বে চালু এবং করোনার নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা বাড়ানোর প্রস্তাবও করেছেন তারা।

এছাড়া সরকারি ও প্রাইভেট হাসপাতাল, ক্লিনিক রিকুইজিশন করে সরকারি খরচে চিকিৎসা নিশ্চিত করতেও তারা প্রস্তাব করছেন।

মঙ্গলবার (২ জুন) গণমাধ্যম পাঠানো এক বিবৃতিতে উদ্বেগ প্রকাশের পাশাপাশি এসব প্রস্তাব রাখেন তারা।

বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়, চট্টগ্রামে সোমবার (১ জুন) পর্যন্ত চট্টগ্রামে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৩১৫১ জন। কিন্তু টেস্টের অপ্রতুলতার কারণে অসংখ্য মানুষ সংক্রমণ শনাক্তের বাইরে থেকে যাওয়ার সম্ভাবনাই বেশি। এই অবস্থায় সরকারি উদ্যোগে করোনা চিকিৎসার জন্যে যে হাসপাতালগুলো নির্ধারিত হয়েছে তাতে রোগীর অত্যধিক চাপে সেখানে কোন আসন খালি নেই। নতুন ঘোষিত হাসপাতালগুলো পর্যাপ্ত জনবলের অভাবে চালু করা যাচ্ছে না বলে সরকারি মহলের লোকজনই বলছেন।

এতে আরও বলা হয়, ডাক্তারসহ সকল সেবাকর্মীদের জন্যে পর্যাপ্ত জীবন সুরক্ষা সামগ্রী ও মানসম্পন্ন আলাদা বাসস্থানের ব্যবস্থাও হয়নি। আমাদের জানামতে এখন পর্যন্ত ৩৩০টি বেড এবং মাত্র ১০টি আইসিইউ দিয়ে চট্টগ্রামে করোনা যুদ্ধ মোকাবেলা করা হচ্ছে। এই অবস্থায় সরকার সবকিছু স্বাভাবিক করে জনজীবন সচল করার পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। অনেক বিশেষজ্ঞ মনে করছেন এতে পরিস্থিতি মারাত্মক অবনতি ঘটবে।

তারা সকল সরকারি ও প্রাইভেট হাসপাতাল, ক্লিনিক রিকুইজিশন করে সরকারি খরচে চিকিৎসা নিশ্চিতের পাশাপাশি করোনা চিকিৎসার জন্য সরকার ঘোষিত হাসপাতালগুলো অবিলম্বে চালুর দাবি জানান।

এছাড়াও তাদের দাবি, করোনা চিকিৎসার সকল হাসপাতাল জনসাধারণের জন্য উন্মুক্ত রাখতে হবে। ব্যাপকহারে টেস্ট বাড়াতে হবে। বিশেষ করে শহরের বিভিন্ন শ্রমিক অঞ্চলে টেস্ট সহজলভ্য করে দিতে হবে।

বিবৃতিতে স্বাক্ষর করেন বিশিষ্ট কবি ও সাংবাদিক আবুল মোমেন, মুক্তিযোদ্ধা ও গবেষক ডা. মাহফুজুর রহমান, প্রকৌশলী সুভাষ বড়ুয়া, লেখিকা ফেরদৌস আরা আলীম, এডভোকেট সালাহউদ্দিন হায়দার, এডভোকেট ভুলন ভৌমিক, এডভোকেট আখতার কবির চৌধুরী, কমরেড অশোক সাহা, কমরেড অপু দাশগুপ্ত, ডা. চন্দন দাশ, ডা. সুশান্ত বড়ুয়া, সাবেক কাউন্সিলর বিজয় কৃষাণ চৌধুরী, প্রফেসর কুন্তল বড়ুয়া, নুরুল আবচার, মো. ইয়াছমিন, এডভোকেট আমীর আব্বাস তাপু, কাউন্সিলর জান্নাতুল ফেরদৌস পপি, এডভোকেট বিশুময় দেব, সত্যজিৎ বিশ্বাস, ধ্রুব জ্যোতি হোড়।

এমএফও

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

Manarat
2 মন্তব্য
  1. মুনির আহমেদ বলেছেন

    আমি চারটা টিকিট ক্রয় করিতে চাই আমাকে কি ইউ এস বাংলার ই মেইল অ্যাড্রেস দেয়া যায় কি?

  2. MIK বলেছেন

    Why 24 only?
    Where are those civil society activists whose presence were seen in front of press club off and on?

    Where are those social leaders?
    When they will be awake?

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন
ksrm