চট্টগ্রামে যুবলীগ কর্মীকে পেটানোর ঘটনায় গ্রেপ্তার ১

0

চট্টগ্রামের আকবর শাহ থানা এলাকায় প্রকাশ্যে রড ও লাঠি দিয়ে দল বেঁধে যুবলীগ কর্মীকে পেটানোর ঘটনায় মো. জামাল (১৯) নামের এক কিশোরকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

শনিবার (৬ জুলাই) বিকেলে নগরের শাপলা আবাসিক এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছে আকবর শাহ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোস্তাফিজুর রহমান চৌধুরী। গ্রেপ্তারকৃত মো. জামাল আকবর শাহ এলাকার মৃত এখলাছের ছেলে।

ওসি মোস্তাফিজুর রহমান চৌধুরী বলেন,মহসিনকে মারধরের ঘটনায় মো. জামাল নামের একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গতকালও ওই মারামারির ঘটনায় মামলা উল্লেখিত অভিযুক্ত আত্মগোপন করে থাকা অবস্থায় তুহিনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আমরা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আলোচিত হওয়া ভিডিও ফুটেজ দেখে তাকে গ্রেপ্তার করেছি।

তিনি আরোও বলেন, মহসিনকে মারার ঘটনায় এই পর্যন্ত সাতজনকে গ্রেপ্তার করেছি। ঘটনার দিন রাতেই অভিযান চালিয়ে আমরা পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করি। তারা হল সাজু (২৪),মাসুদ(১৮),মিরাজ (১৭),বেলাল(২০) ও তারেক(১৮)।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, এক মিনিট ৩৩ সেকেন্ডের হামলার ভিডিও ফুটেজ আমরা পেয়েছি। সেখান থেকে মোট আটজনকে আমরা শনাক্ত করেছি। এদের সঙ্গে আরও কয়েকজন ছিল। এদের মধ্যে জুয়েল, তুহিন, রাব্বী, পারভেজ, ফারহান ও খোকন নামের ছয়জনের তথ্য সংগ্রহ করা হয়েছে। হামলার সময় যে যুবকটি মহসিনের পা ধরে রেখেছিল তার নাম জুয়েল। তুহিন, রাব্বী, পারভেজ, সাজু ও ফারহান তাকে লাঠি দিয়ে পেটায়। আর খোকন তাদের সঙ্গে ছিল। ইতোমধ্যে তুহিনকে গতকালকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বাকিদের ধরতে অভিযান চালিয়ে যাচ্ছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

এ ঘটনায় ভিকটিমের পক্ষ থেকে থানায় কোনো অভিযোগ না করলে আকবরশাহ থানার পুলিশের এসআই এমদাদ অস্ত্র আইনে একটি মামলা করেন। এ মামলায় নয়জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরও সাতজনকে আসামি করা হয়েছে।

এইচটি/এসএস

Loading...
আরও পড়ুন