চট্টগ্রামকে লজ্জায় ডোবাল লক্ষীপুর

0

বয়সভিত্তিক ক্রিকেট এক সময় দাপট দেখানো চট্টগ্রাম জেলা দল এখন পার করছে দৈন্যদশা। বেশ কয়েকবছর ধরে বয়সভিত্তিক বিভিন্ন দলের চূড়ান্ত পর্বে উঠতে ব্যর্থ হচ্ছে চট্টগ্রাম। রাঙামাটির কাছে ৫৮ রানে অলআউট হওয়ার লজ্জা, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, কক্সবাজার, চাঁদপুর প্রভৃতি জেলা দলের কাছে চট্টগ্রামের হার এখন নিয়মিত ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে। দেশের চার ভেন্যুতে চলমান অনূর্ধ্ব-১৮ বিভাগীয় দলে চট্টগ্রাম জেলার মাত্র ১ জন খেলোয়াড় সুযোগ পাওয়া থেকে স্পষ্ট হয়ে উঠে বয়সভিত্তিক ক্রিকেট চট্টগ্রাম জেলা দলের হালচাল। সর্বশেষ অনূর্ধ্ব-১৪ চট্টগ্রাম জেলা দলও সেই পথে হাঁটলো। নোয়াখালীর শহীদ ভুলু স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত অনূর্ধ্ব-১৪ বিসিবি ইয়াং টাইগার্স ক্রিকেট প্রতিযোগিতায় রোববার (২২ ডিসেম্বর) নিজেদের প্রথম ম্যাচে লক্ষীপুরের কাছে লজ্জাজনকভাবে হারল চট্টগ্রাম জেলা দল।

টসে জিতে ব্যাট করতে নেমে ২৫ রানে প্রথম উইকেট হারানো চট্টগ্রাম আর কোন উইকেট না হারিয়ে পৌঁছে যায় পঞ্চাশের ঘরে। এরপর পঞ্চাশ থেকে ষাটের ঘরে যেতেই নাই হয়ে যায় চট্টগ্রামের পাঁচ পাঁচটি উইকেট। দুই ওপেনার শেখ মেহেদী ও আহনাফ খান উভয়ই ব্যক্তিগত ১৬ রানে আউট হওয়ার পর চট্টগ্রামের ইনিংসে মড়ক লাগে। বাকি ব্যাটসম্যানদের আসা-যাওয়ার মিছিলে হামজা মোহাম্মদ একপ্রান্ত আগলে ধরে প্রতিরোধ করার চেষ্টা করেছিলেন। কিন্তু তাকে কেউ বেশিক্ষণ সঙ্গ দিতে পারেননি। তাই দলীয় রান একশ পেরুনোর আগেই মাত্র ৯৬ রানে অলআউট হয়ে যায় চট্টগ্রাম। হামজা করেন দলীয় সর্বোচ্চ ১৯ রান।

লক্ষীপুরের মোহাম্মদ ইবরাহিম একাই শিকার করেন চট্টগ্রামের চার ব্যাটম্যানের জীবন। জবাবে লক্ষীপুর জেলা শাহরিয়ার মুজিবের ৩৮ রান ও আবির হোসাইনের ২৫ রানে মাত্র ২ উইকেট হারিয়ে জয় নিয়ে চট্টগ্রামকে লজ্জা দিয়ে মাঠ ছাড়ে। অথচ ছোট বড় মিলিয়ে চট্টগ্রাম রয়েছে প্রায় ত্রিশটি ক্রিকেট অ্যাকাডেমি। এসব অ্যাকাডেমি ও বিসিবির বেতনভুক্ত চট্টগ্রামের হাইপ্রোফাইল কোচদের ক্রিকেট প্রশিক্ষণ এবং অন্যান্য দায়-দায়িত্ব পর্যবেক্ষণ করা এখন সময়ের দাবী। কিন্তু যারা এসব তদারকী করবেন তাদেরতো আর এসবে আগ্রহ বা সময় কোনটায় নেই। কোন টুর্নামেন্টের উদ্বোধন কিংবা সমাপনীতে চেহারা দেখাতে পারলেই নিজের কর্মদক্ষতার প্রমাণ হয়ে যায়। এ যেন সর্ষের ভিতর ভূত, তাইতো তাড়ানো যাচ্ছে না ভূত। উল্টো চেপে ধরেছে চট্টগ্রামের ক্রিকেটকে।

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন