চকরিয়ায় স্কুলছাত্রী ধর্ষণ, আপসের চেষ্টা আওয়ামীলীগ নেতার

0

কক্সবাজারের চকরিয়ায় তৃতীয় শ্রেণির এক ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে গাড়ির হেলপার জাকারিয়ার বিরুদ্ধে। ওই ছাত্রীকে ধর্ষণের পর ঘটনা ধামাচাপা দিতে সরকারি দলের এক নেতার নেতৃত্বে আপসের চেষ্টা চলে বলেও অভিযোগ পাওয়া গেছে। ছাত্রীর পরিবার আপসে রাজি না হয়ে বিষয়টি পুলিশকে অবহিত করে। পরে ধর্ষিতাকে সদর হাসপাতালের ওসিসিতে (ওয়ানস্টপ ক্রাইসিস সেল) নেওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।

রোববার (২৪ নভেম্বর) উপজেলার হারবাং ইউনিয়নের বাইঘ্যার ঘোনা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। অভিযুক্ত ধর্ষক জাকারিয়া পলাতক রয়েছে। তিনি ওই এলাকার এমদাদ আহমদের ছেলে।

ধর্ষিতা ওই ছাত্রীর পরিবার জানিয়েছে, মেয়েটি স্থানীয় একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে তৃতীয় শ্রেণিতে পড়ে। প্রতিদিনের মতো রোববার বিকাল ৪টায় স্কুল ছুটি হলে বাড়ি ফেরার পথে ওই ছাত্রীকে রাস্তা থেকে তুলে মৎস্য প্রকল্প এলাকায় নিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। মেয়ে ঘরে না ফেরায় মা, বাবা ও স্বজনরা মৎস্য প্রকল্প এলাকায় মেয়েকে খুঁজে পায়। মেয়ের অবস্থা দেখে তারা ধর্ষণের বিষয়টি জানতে পারে।

ছাত্রীর পরিবার অভিযোগ করেছেন, ‘পরে তাকে নিয়ে থানায় আসার চেষ্টা করলে বাধা দেয় প্রভাবশালীরা এবং ঘটনাটি আপসের চেষ্টা করেন চকরিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নজরুল ইসলাম প্রকাশ কালা নজরুল। আপস না হয়ে রাত ১২টায় ঘটনাটি পুলিশকে জানায় ভিকটিমের পরিবার।’

চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. হাবিবুর রহমান বলেন, ‘ভিকটিমকে চিকিৎসা করাতে মেয়েটির মা-বাবা কক্সবাজার সদর হাসপাতালে রয়েছে। চিকিৎসা শেষে বাড়ি ফিরে এজাহার দিলে মামলা নেওয়া হবে। রোববার দিবাগত রাতে মৌখিকভাবে ঘটনাটি জানার পর অভিযুক্তকে ধরতে হারবাং ফাঁড়ির আইসিকে নির্দেশ দিয়েছি।’

এএইচ

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন