চকরিয়ার খোদারকুম পুকুরের অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ

দীর্ঘদিন ধরে বেশ কিছু ভুমিদুস্য কক্সবাজারের চকরিয়ার পৌরশহরের ভরামুহুরীর ঐতিহ্যবাহী খোদারকুম পুকুর দখল করে রেখেছিল। এর মধ্যে অনেকে রাতের আঁধারে স্থাপনা নির্মাণকাজ শুরু করে। এসব অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

মঙ্গলবার (২৫ জুন) বিকাল ৫টার দিকে উচ্ছেদ অভিযান চালানো হয়। অভিযানে নেতৃত্ব দেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) এবং নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো.ফখরুল ইসলাম। এসময় চকরিয়া পৌরসভার নির্বাহী কর্মকর্তা মাসউদ মোর্শেদসহ আনসার, উপজেলা ও পৌরসভার কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

চকরিয়া পৌরসভার নির্বাহী কর্মকর্তা মাসউদ মোর্শেদ জানান, পৌরশহরের ভরামুহুরীর খোদারকুম ঐতিহাসিক পুকুর। শত বছরের পুরোনো এই পুকুরটি এ অঞ্চলের সাধারণ মানুষের দৈনন্দিন কাজসহ জনগুরুত্বপূর্ণ কাজে ব্যবহার হয়ে আসছে।

আশপাশের এলাকায় আগুন লাগলে ফায়ার সার্ভিস কর্তৃপক্ষ এই পুকুর থেকে পানি সংগ্রহ করে আগুন নেভানোর কাজ করে। এছাড়াও সাধারণ মানুষ গোসলসহ নানা কাজে ব্যবহার করে। কিন্তু কিছু ভূমিদস্যুরা এই পুকুরটি ভরাট করে স্থাপনা নির্মাণ করে চলেছে। গত কয়েকদিন ধরে এই পুকুর দখল করে স্থাপনা নির্মাণ করে কিছু ভূমিদস্যু। বিষয়টি আমাদের নজরে আসলে চকরিয়া উপজেলা প্রশাসনকে অবহিত করি। পরে মঙ্গলবার বিকাল থেকে ইউএনওর নেতৃত্বে অভিযান পরিচালনা করে বেশ কিছু স্থাপনা উচ্ছেদ করি।

তিনি আরও বলেন, খোদারকুম পুকুরটির অংশ পরিমাপ করে পুকুরের অন্যান্য অংশে গড়ে উঠা স্থাপনা উচ্ছেদ করা হবে। পাশাপাশি পৌরসভার পক্ষ থেকে এই পুকুরকে আধুনিকায়ন করা হবে এবং কেউ যদি নতুন করে স্থাপনা নির্মাণ করতে চায়, তাহলে তাৎক্ষণিক অভিযান চালিয়ে উচ্ছেদ করা হবে।

ডিজে

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!