আক্রান্ত
১৪৪৫০
সুস্থ
২৩৩১
মৃত্যু
২৩৩

ঘরে বসেই পছন্দের কেনাকাটা পণ্য পৌঁছে দিবে ‘বেকার’ রাইড শেয়ারকারীরা

0

করোনাভাইরাস উদ্ভুত পরিস্থিতিতে ঈদের কেনাকাটা সারতে চট্টগ্রাম নগরীতে চালু হলো ‘ডিজিটাল ঈদ বাজার।’ এতে ক্ষুদ্র ও মাঝারি ব্যবসীয়দের স্বার্থ সুরক্ষার পাশাপাশি এই বাজারের লভ্যাংশ থেকে করোনা দূর্যোগে অসহায় মানুষের সহযোগিতা করার কথা জানান উদ্যোক্তারা। পাশাপাশি বেকার হয়ে যাওয়া রাইডারদেরও কাজের সুযোগ তৈরী হচ্ছে।

ডিজিটাল ঈদ বাজারে ক্ষুদ্র ও মাঝারি পুঁজির যে কোন ব্যবসায়ী বিনা ফিতে রেজিস্ট্রেশন করতে পারবেন। রেজিস্ট্রেশন করে পণ্যের ছবি, দামসহ বিস্তারিত তথ্য দিবেন। যে কোন ক্রেতা, নগরীর যে কোন স্থান থেকে পণ্যের ক্রয়াদেশ দিতে পারবেন। ক্রয়াদেশ পাওয়ার পর করোনায় বেকার হয়ে যাওয়া মোটরসাইকেলের রাইড শেয়ারকারীদের মাধ্যমে ক্রেতার ঠিকানা পণ্য পৌঁছে দেওয়া হবে।

এতে ব্যবসায়ী তার লভ্যাংশ থেকে একটা অংশ ‘লিড লাইফ’ এবং ‘টিম চিটাগাং’ জনকল্যাণে প্রদান করবেন।

ঈদ বাজারের অন্যতম উদ্যোক্তা ইমতিয়াজ উদ্দীন জিহাদ চট্টগ্রাম প্রতিদিনকে জানান, করোনাভাইরাস উদ্ভুত পরিস্থিতিতে সংক্রমণের ঝুঁকি থাকায় সারা দেশের মতো বন্দর নগরীর সব মার্কেট, শপিংমল বন্ধ থাকছে।

আর মার্কেট, শপিংমল বন্ধ থাকায় অসহায় অবস্থার মধ্যে পড়েছে ক্ষুদ্র ও মাঝারি পর্যায়ের উদ্যোক্তারা। এই পরিস্থিতিতে সংক্রমণমুক্ত থেকে অনলাইনে ঈদের কেনাকাটার জন্য সাধারণ মানুষকে সুযোগ দিতে ‘ডিজিটাল ঈদ বাজার’ চালু করেছি আমরা।

অপর উদ্যোক্তা আব্দুল্লাহ আল কায়সারের প্রত্যাশা- ফেসবুক ইভেন্টের মাধ্যমে চালু হওয়া ডিজিটাল ঈদ বাজারে ক্ষুদ্র ও মাঝারি উদ্যোক্তাদের পুঁজি যেমন সুরক্ষিত হবে তেমনি কিছু অসহায় মানুষ সহযোগিতা পাওয়ার পাশাপাশি বেকার হয়ে যাওয়া রাইড শেয়ারকারীরাও জীবিকা নির্বাহ করতে পারবেন। ক্রেতারা হয়রানি বা ঝুঁকি ছাড়াই তাদের পছন্দের পণ্য কিনতে পারবেন ঘরে বসে।

এ বিষয়ে আরো বিস্তারিত জানা যাবে ০১৬৪৩ ৬৭৮ ৫৫৫ নম্বরে। এছাড়া নিচের লিংকে ক্লিক করে ডিজিটাল ঈদ বাজারে প্রবেশ করে করা যাবে ক্রয়-বিক্রয়। bit.ly/DigitalEidBazar2020

এফএম/এসএইচ

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

ManaratResponsive

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন
ksrm