আক্রান্ত
২০৮৬০
সুস্থ
১৬২৯১
মৃত্যু
৩০১

গোলপাহাড়ের ফুটপাতে আস্ত মার্কেট, পথচারী চলে সড়কে

0

চট্টগ্রাম নগরীর ব্যস্ত সড়কগুলো হকারের দখলে চলে গেছে অনেক আগেই। বেশিরভাগ স্থানেই আছে ভ্রাম্যমাণ হকার, আবার কোথাও দেখা যায় কাঠের চৌকি নিয়ে বসে পড়ার চিত্রও। ফুটপাত দখলের অন্য এক চিত্র দেখা গেলো গোলপাহাড় এলাকায়। এ এলাকায় ফুটপাত দখল করে ভ্রাম্যমাণ হকার কিংবা চৌকি নয় বরং ঢেউটিন লাগিয়ে গড়ে তোলা হয়েছে আস্ত মার্কেট!

সোমবার (২০ জানুয়ারি) সরেজমিনে দেখা যায়, গোলপাহাড় এলাকায় কালীবাড়ি মন্দিরের বিপরীত পাশে ফুটপাতের ওপর গড়ে তোলা হয়েছে ঢেউটিনের তৈরি আস্ত মার্কেট। প্রায় ১০টি দোকান নিয়ে গড়ে উঠা এ মার্কেটে হাঁক ডেকে চলছে বেচাকেনা। বিক্রি হচ্ছে জামা-কাপড়, শার্ট-প্যান্ট, সঙ্গে আছে ফুলের দোকানও।

মার্কেটের এক দোকানির সাথে কথা বলে জানা যায়, মার্কেটের আশপাশে রয়েছে দুটি বিশ্ববিদ্যালয়। সেই সাথে চকবাজার ও জিইসিগামী শিক্ষার্থীসহ কর্মজীবীদের চলাফেরা এই সড়ক দিয়েই। সবমিলিয়ে জমজমাটভাবে চলছে ব্যবসা। কিন্তু ফুটপাতের ওপর এমন জমজমাট ব্যবসা প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলার ফলে চরম ভোগান্তিতে পড়ছেন কর্মব্যস্ত ওই সড়কের পথচারীরা। আস্ত মার্কেটে ফুটপাত দখল হয়ে যাওয়ার কারণে সড়কের ওপর দিয়েই চলছে পথচারীরা। কিন্তু সেখানেও সড়ক বেদখল হয়ে বসেছে ভ্রাম্যমাণ হকারদের ভ্যান। মার্কেটটির আগের অংশের ফুটপাতে রাখা হয়েছে বাঁশের স্তূপ, ভ্যান গাড়ি। এর আগের অংশ দখল করে ছাউনি গড়ে তুলেছে ‘লাযিযা ইট অ্যান্ড টেক’। আবার প্রতিষ্ঠানটির সামনেই ছোটফলকে লেখা আছে— ‘ফুটপাত ব্যবহার করুন’।

স্থানীয় সূত্র জানায়, কিছুদিন আগে ইমপালস প্রপার্টিজ লিমিটেড থেকে দোকানটি বুঝে নেয় ইট অ্যান্ড টেক কর্তৃপক্ষ। এর আগে ফুটপাতের জায়গায় জমজমাট ব্যবসা প্রতিষ্ঠান খুলে বসেছে নুরুল আলম নামের এক ব্যক্তি।

এ বিষয়ে তার সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে নুরুল আলমের সন্তান পরিচয়ে মঈনউদ্দিন হাসান চট্টগ্রাম প্রতিদিনকে বলেন, ‘দখলের বিষয়টি সত্য নয়। বহু বছর আগে থেকে জায়গাটি নিয়ে সরকারের সাথে মামলা চলছে। আমরা আমাদের নায্য পাওনা না পাওয়ার কারণে জায়গাটি ছাড়িনি। এ ব্যাপারে আমাদের সাথে একটি চুক্তিও হয়েছে।’

নগরীর গোলপাহাড় এলাকা সংযুক্ত করেছে চট্টগ্রামের চকবাজার ও জিইসিসহ একাধিক গুরুত্বপূর্ণ এলাকাকে। চকবাজারের একদিকে রয়েছে স্কুল, কলেজ, কোচিংসহ অর্ধ-শতাধিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সেই সঙ্গে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ ও ডজনের বেশি বেসরকারি হাসপাতাল।

অন্যদিকে নগরীর অন্যতম ব্যস্ত মোড় চট্টগ্রামের জিইসি। নগরীর কর্মব্যস্ত সড়কের এমন অব্যবস্থাপনায় চরম ক্ষোভ প্রকাশ করছেন স্থানীয় ও পথচারীরা। ওই এলাকার বাসিন্দা মো. হাসনাত চট্টগ্রাম প্রতিদিনকে বলেন, ‘সড়কজুড়ে ভ্যানগাড়ি আর ফুটপাত দখল করে দোকান গড়ে তোলা হয়েছে। এতে সবসময় যানজট লেগেই থাকে, জরুরি মুহূর্তে যানজটে পড়ে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছি।’

এএ/এসএস

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

ManaratResponsive

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন
ksrm