আক্রান্ত
৩১৫১
সুস্থ
২২৭
মৃত্যু
৭৬

গাছ চুরি, কাপ্তাই যুবলীগ সভাপতি সেই নাসিরের ৩ বছর জেল

0

সরকারি গাছ চুরির মামলায় অবশেষে ফাঁসলেন কাপ্তাই উপজেলা পরিষদের ভাইস-চেয়ারম্যান ও উপজেলা যুবলীগের সভাপতি মো. নাসির উদ্দিন। তাকে ৩ বছরের স্বশ্রম কারাদণ্ড ও ৩০ লাখ টাকা অর্থদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

একইসঙ্গে নাসিরের সহযোগী ও মামলার অপর আসামি বাবুল মেম্বারকে দেড় বছরের স্বশ্রম কারাদণ্ড ও ১০ লাখ টাকা অর্থদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৮ জানুয়ারি) দুপুরে রাঙামাটি সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সবুজ পালের আদালত এ আদেশ দেন। দু’জনই আদালতে বন মামলায় হাজিরা দিতে গেলে তাদের জেলা হাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন আদালত।

২০১৭ সালের ৬ ডিসেম্বর গণমাধ্যমের নজরে আসেন বিভিন্ন অপকর্মে আলোচিত নাসির। ওই দিন নিজের ক্যাডারদের নিয়ে পার্বত্য চট্টগ্রাম দক্ষিণ বনবিভাগের রাঙামাটি কার্যালয়ে কাপ্তাইয়ের ‘প্রশান্তি পার্ক’ পিকনিক স্পট ইজারার টেন্ডারবক্স দখলেন নেন। একইদিন চৌধুরী হাসান মাহমুদ আকবরী ও ওয়াকার উদ্দিন মো. তারেক নামের দুই রিসোর্ট ব্যবসায়ী শিডিউল জমা দিতে গেলে তা ছিনিয়ে নেয় নাসির ও তার বাহিনী।

খবর পেয়ে দৈনিক চট্টগ্রাম প্রতিদিনের রাঙামাটি প্রতিনিধি জিয়াউর রহমান জুয়েল ছবি তুলতে গেলে তার ক্যামেরাও ছিনিয়ে নিয়ে তাকে লাঞ্চিত করে। পরদিন ৭ ডিসেম্বর চট্টগ্রাম প্রতিদিনে ‘কাপ্তাইয়ে শিডিউল ছিনতাই করলেন যুবলীগ নেতা’ শিরোনামে সংবাদ প্রকাশিত হয়। এছাড়া বেশ কয়েকটি গণমাধ্যমেও সংবাদটি গুরুত্ব দিয়ে ছাপা হয়।

অবশ্য ওই টেন্ডার বাতিল করে পুনঃটেন্ডার দেওয়ার দাবি করে বিষয়টি তৎকালীন দক্ষিণ বনবিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা তৌফিকুল ইসলাম ও কোতোয়ালী থানায় ওই দুই ব্যবসায়ী লিখিত অভিযোগ দিলেও কোনো কাজে আসেনি। তখন থেকেই কাপ্তাই ‘প্রশান্তি পার্ক’ পিকনিক স্পটটি নিজের নিয়ন্ত্রণে রেখেছেন নাসির।

বনবিভাগ ও আদালত সূত্রে জানা গেছে, ২০১৮ সালে কাপ্তাই রেঞ্জের রামপাহাড় বনবিটের ৪৯ লাখ টাকার গাছ কেটে নিয়ে যায় নাসির ও বাবুল মেম্বার গং। গাছগুলো কাটার দায়ে ওই রেঞ্জের ফরেস্টার নির্মল কুমার মণ্ডল বাদী হয়ে কোর্টে একটি মামলা (পিওআর বন মামলা-৭/২০১৮) দায়ের করেন। মঙ্গলবার আসামি নাসির ও বাবুল মেম্বার আদালতে হাজিরা দিতে যান। পরে স্বাক্ষ্যপ্রমাণ শেষে দুজনকেই কারাদণ্ডে দণ্ডিত করেন আদালত।

কোর্ট পরিদর্শক মো. জাহাঙ্গীর আলম বলেন, ‘সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সবুজ পালের আদালত বন মামলার আসামি নাসির উদ্দিন ও বাবুল মেম্বারকে কারাদণ্ড দিয়ে হাজতে পাঠানো হয়েছে। এরমধ্যে নাসিরকে ৩ বছরের স্বশ্রম কারাদণ্ড ও ৩০ লাখ টাকা অর্থদণ্ড অনাদায়ে আরও ২ মাস বিনাশ্রম কারাদণ্ড এবং বাবুল মেম্বারকে দেড় বছরের জেল ও ১০ লাখ টাকা জরিমানা অনাদায়ে ১ মাসের জেল ও ১০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড দেওয়া হয়েছে।’

এএইচ

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

Manarat

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন
ksrm