আক্রান্ত
১৫২১৬
সুস্থ
৩১৯৬
মৃত্যু
২৪৫

গাছরোপণের বাহানায় রিংরোডের ৪ কিলোমিটার হাজী ইকবালের দখলে

0

প্রকল্পের কাজ শেষ না হতেই চট্টগ্রাম নগরীর আউটার রিং রোডের জায়গা দখলে নিচ্ছেন আওয়ামী লীগ নেতা হাজী ইকবাল। ‘বৃক্ষরোপণের’ আড়ালে রাস্তার পাশের প্রায় ৪ কিলোমিটার এলাকা তার আয়ত্তে নেওয়ার চেষ্টা চালাচ্ছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। ইতিমধ্যে ওই সড়কের আনন্দবাজার বেড়িবাঁধ এলাকায় একটি এবাদতখানা নির্মাণ করেছেন। সড়কের পাশে চার কিলোমিটার এলাকায় জুড়ে লাগিয়েছেন ২০০ চারা গাছ।

এলাকাবাসী বলছেন, তারা ইতিমধ্যে বুঝে গেছেন ২০০ চারা গাছ লাগানো ওই বিশাল জায়গা হাজী ইকবালেরই দখলে চলে গেছে। যুবলীগ নেতা মো. মহিউদ্দিন হত্যা মামলার প্রধান আসামি হাজী ইকবাল সম্প্রতি ওই মামলায় জামিনে এসেছেন।

এলাকাবাসী জানায়, হাজী ইকবাল সিডিএর আউটার রিং রোডের জায়গা দখলে নিয়ে এবাদতখানা তৈরি করার পর তার অনুসারীরা আশপাশের বিভিন্ন জায়গায় দোকানপাট তৈরি করেছেন।

সরেজমিনে দেখা যায়, ইটের বাউন্ডারি দিয়ে এবাদতখানা নির্মাণ করছেন স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা হাজী ইকবাল। চট্টগ্রাম নগরীতে বর্তমান সরকারের উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ডের মধ্যে অন্যতম হচ্ছে আউটার রিং রোড নির্মাণ প্রকল্প। এতে শহর রক্ষা বাঁধের পাশাপাশি চট্টগ্রাম নগরীকেও যানজটমুক্ত করার লক্ষ্য রয়েছে।

সরকারি জায়গা দখল করে গড়ে উঠছে অবৈধ স্থাপনা
সরকারি জায়গা দখল করে গড়ে উঠছে অবৈধ স্থাপনা

২০১৬ সালের জুলাইয়ে চার লেনের এ সড়কটির নির্মাণ কাজ শুরু হয়। চট্টগ্রাম নগরীর পতেঙ্গা থেকে ফৌজদারহাট পর্যন্ত চলছে আউটার রিং রোড নির্মাণ প্রায় আড়াই হাজার কোটি টাকার এ প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (সিডিএ)।

এই রিং রোড নির্মাণ প্রকল্পের কাজ শেষ না হতেই বন্দর থানাধীন আনন্দবাজার বেড়িবাঁধ এলাকায় চলছে সরকারি জায়গা দখলের মহোৎসব। বেড়িবাঁধের দুই পাশে গড়ে উঠেছে একাধিক অবৈধ স্থাপনা ও দোকানপাট। বেড়িবাঁধের ওপরে উঠতেই চোখে পড়বে সরকারি জায়গা দখল করে গড়ে তোলা মাছের আড়তসহ বিভিন্ন দোকানপাট। বেড়িবাঁধ দিয়ে সাগরে নামতেই ব্লকের ওপর গড়ে উঠেছে ভাসমান দোকানপাট।

এলাকাবাসী আশঙ্কা করছে, আউটার রিং রোড ও ব্লকের মাঝখানে ঢালু জায়গার ওপর ইটের বাউন্ডারি দিয়ে এবাদতখানা নির্মাণের নামে সরকারি জায়গা অবৈধ দখল করে নির্মাণাধীন আউটার রিং রোডকে হুমকির মুখে ফেলে দিচ্ছেন যুবলীগ নেতা মহিউদ্দিন হত্যামামলার প্রধান আসামি হাজী ইকবাল। অবৈধ দখলের কারণে বর্তমান সরকারের চলমান প্রকল্পে আউটার রিং রোডের নির্মাণকাজও প্রশ্নবিদ্ধ হয়ে পড়েছে।

এ ব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে হাজী ইকবাল চট্টগ্রাম প্রতিদিনকে বলেন, ‘আমি কোন জায়গা দখল করছি না। একটি জায়গা সমান করা হয়েছে এবাদতখানার জন্য। আপনি এসে দেখে যান আমি কোনো জায়গা দখল করেছি কিনা।’

১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবসে চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের সামনে শিয়াদের মতো মাতম করে দেশজুড়ে সমালোচিত হয়েছিলেন হাজী ইকবাল।
১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবসে চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের সামনে শিয়াদের মতো মাতম করে দেশজুড়ে সমালোচিত হয়েছিলেন হাজী ইকবাল।

২০১৮ সালের ২৬ মার্চ নগরীর সল্টগোলা এলাকায় হালিশহর মেহের আফজল উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানের প্রস্তুতিসভা চলাকালে যুবলীগকর্মী মহিউদ্দিনকে (৩২) কুপিয়ে হত্যা করা হয়। এই হত্যাকাণ্ডের জন্য হাজী ইকবালকে দায়ী করছেন নিহতের পরিবারের সদস্যদের পাশাপাশি প্রত্যক্ষদর্শীরা। এ ঘটনায় ওই বছরের ২২ জুলাই হাজী ইকবাল, তার ভাই, ছেলে, মেয়ে জামাইসহ ২০ জনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দেয় বন্দর থানা পুলিশ।

হাজী ইকবাল একসময় বন্দর থানা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ছিলেন। দলের শৃঙ্খলাবিরোধী কর্মকাণ্ডের জন্য ১০ বছর আগে তাকে বহিষ্কার করা হয়। তিনি ২০১৭ সালের ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবসকে কেন্দ্র করে চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবে ‘হায় মুজিব হায় মুজিব’ মাতমে নিজের শরীর থেকে কথিত রক্ত ঝরানোর চেষ্টায় জিঞ্জির চাকু দিয়ে আঘাত করে শিয়াদের মতো মাতম করে সমালোচিত হয়েছিলেন।

এএস/সিপি

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

ManaratResponsive

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন
ksrm