খুলশীতে ব্যাটারি বিক্রির নামে ব্যবসায়ীর সঙ্গে প্রতারণা, গ্রেপ্তার ৫

ব্যাটারি বিক্রির নামে ব্যবসায়ীর সঙ্গে প্রতারণার মামলায় পাঁচ প্রতারককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। রেলওয়ের বিভিন্ন দপ্তরের পুরাতন ব্যাটারি বিক্রির নামে তারা কক্সবাজারের এক ব্যবসায়ীর কাছ থেকে টাকা হাতিয়ে নেয়।

মঙ্গলবার (২২নভেম্বর) খুলশী থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে আসামিদের গ্রেপ্তার করে। এর আগে আবু নাসের মো. গোলাম রসুল (৫২) নামের এক ব্যবসায়ী এ ঘটনায় মামলা করেন।

গ্রেপ্তার আসামিরা হলেন নুরুল হক ওরফে নুরু (৬০), আব্দুল গফুর (৬৪), নাদেরুজ্জামান ওরফে নাদু (৬৫), আব্দুল্লাহ আল মামুন ওরফে শাহাদাত (৪৮) এবং মোজাহেরুল হক মুকুল।

এজাহার সূত্রে জানা গেছে, গত ২৬ মে কক্সবাজারের ব্যবসায়ী আবু নাসের ফোন নম্বরে একটি কল আসে। ফোনের অপরপ্রান্তে থাকা লোক তাকে ৩০০টি পুরাতন ব্যাটারি বিক্রি করবে বলে জানায়। শুনে কিনতে রাজি হন আবু নাসের। এরপর গত ২৮ মে প্রতারকরা টাইগারপাসের আমবাগানে রেলওয়ের একটি পরিত্যক্ত বাসায় নিয়ে গিয়ে কয়েকটি ব্যাটারি দেখায় এবং ৫০ হাজার টাকা অগ্রিম নেয়। এর পরদিন ব্যাটারি নিতে এলে আবু নাসের ও তার ছেলেকে একটি প্রাইভেটকারে নিয়ে ঘুরতে থাকেন প্রতারক চক্র। এ সময় আবু নাসেরের সঙ্গে থানা গুরুত্বপূর্ণ কাগজ ও নগদ সাড়ে চার লাখ টাকা নিয়ে নেয় তারা। এরপর তাদের ১০ মিনিট অপেক্ষা করতে বলে কদমতলীর একটি গ্যাস পাম্পের সামনে নামিয়ে দিয়ে চলে যায় প্রতারক চক্র। পরে তারা না এলে প্রতারণার বিষয়টি বুঝতে পারেন আবু নাসের।

অভিযোগ রয়েছে, রেলের বিভিন্ন কর্মকর্তা-কর্মচারী সেজে লোকজনের সঙ্গে দীর্ঘদিন প্রতারণা করে আসছিল এ চক্র। রেলের বিভিন্ন স্ক্র্যাব মালামাল বিক্রির নামে বিভিন্ন সময় লোকজনের কাছ থেকে টাকা হাতিয়ে নিয়েছে এ চক্রের সদস্যরা।

পুরাতন ব্যাটরি, পোড়া মবিল বিক্রিসহ টেন্ডার পাইয়ে দেওয়ার নামেও লোকজন থেকে টাকা নেওয়ার অভিযোগ রয়েছে তাদের বিরুদ্ধে।

Yakub Group

খুলশী থানা পুলিশ জানায়, গত ৬ জুন মামলা দায়েরের পর ঢাকার খিলগাঁও থানা এলাকা থেকে একজনকে, মতিঝিল থেকে ১ জন, কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন থেকে ১ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে আকবরশাহ সী-গেট এলাকা থেকে ১ জনকে গ্রেপ্তা করা হয় বলে জানান খুলশী থানার উপ-পরিদর্শক আনোয়ার হোসেন।

জেএস/ডিজে

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

ksrm