খুলশীতে বিহারীদের কাছ থেকে রেলের আড়াই একর জমি উদ্ধার

উচ্ছেদ অভিযানে আহত চারজন

চট্টগ্রাম নগরীর খুলশী থানার টিকিট প্রিন্টিং প্রেস (টিপিপি) কলোনিতে উচ্ছেদ অভিযান চালিয়ে রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের বিভাগীয় ভূসম্পত্তি বিভাগ। অভিযানে ৩৭৭টি অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করে ২.৩৮ একর জায়গা উদ্ধার করা হয়। তবে এ সময় পুলিশের লাঠিচার্জে চারজন আহত হয়েছে বলে দাবি করেন কলোনিতে বসবাসরত অবাঙালি বিহারীরা।

জানা গেছে, ওই কলোনিতে অবৈধভাবে বসবাস করে আসছিল কিছু অবাঙালি বিহারী পরিবারও। এসব জায়গা অভিযান চালায় রেলওয়ে। অভিযান চলাকালীন স্থানীয় বাঙালিদের সঙ্গে অবাঙালি বিহারীরাও বাধা দিতে আসলে পুলিশ লাঠি চার্জ করে। এ সময় চারজন বিহারী আহত হন।

বুধবার (৭ সেপ্টেম্বর) সকাল ১০টায় টিপিপি কলোনিতে রেলওয়ে এ উচ্ছেদ অভিযান চালায়।

উচ্ছেদ অভিযানে থাকা খুলশী থানার পুলিশ পরিদর্শক খাজা এনাম এলাহী জানান,উচ্ছেদ কার্যক্রমে বাধা দেওয়ার চেষ্টা করলে পুলিশ ও রেলওয়ে নিরাপত্তা বাহিনী লাঠি চার্জ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

জেলা প্রশাসক হতে নির্ধারন করে দেওয়া হলেও অবাঙালী বিহারীরা রেলের জায়গা ঝাউতলা,টিপিপি কলোনী, ওয়ালেস কলোনীতে অবৈধ স্হাপনা করে তা নিজেদের দাবী করে আসছে।

Yakub Group

অবাঙালি বিহারীদের পক্ষে মো. সোহেল বলেন ,‘আমরা বসবাসের বৈধ কাগজপত্র উপস্থাপনের পরও আমাদের স্থাপনা গুঁড়িয়ে দেয় রেল কর্তৃপক্ষ। আমাদের কোনো কথাই তারা শোনেননি।’

রেলওয়ে ভূসম্পদ কর্মকর্তা মাহবুব উল করিম বলেন, ‘জেলা প্রশাসক বৈঠকে সর্দার নগর বিহারী ক্যাম্পে তাদের জন্য বসবাসের স্থান নির্ধারণ করে দেন। এর বাইরে তাদের স্থাপনা থাকলে তা সম্পূর্ণ অবৈধ।’

জেএস/ডিজে

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

ksrm