s alam cement
আক্রান্ত
৪৫৭০৮
সুস্থ
৩৪৯৫২
মৃত্যু
৪৩৭

ক্রসফায়ারের ভয়ে আত্মসমর্পণ, সুদীপ্ত হত্যা মামলার আসামি মোর্শেদ কারাগারে

0

ক্রসফায়ারের ভয়ে আদালতে আত্মসমর্পন করেছেন সুদীপ্ত হত্যার চার্জশিটভুক্ত ২২ নম্বর আসামী মো. নিয়াজ মোর্শেদ। আত্মসমর্পণের পর তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

বুধবার (৩ মার্চ) মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট সরওয়ার জাহানের আদালত এ আদেশ দেন।

মো. নিয়াজ মোর্শেদ মিরসরাই পৌরসভার মঘাদিয়া এলাকার মোল্লা বাড়ির মো. আবুল হাসেমের ছেলে। আসামী পক্ষের আইনজীবী বাবুল দাশ চট্টগ্রাম প্রতিদিনকে বলেন, ‘ক্রসফায়ার ভয়ে নিয়াজ মোর্শেদ আদালতে এসে আত্মসমর্পণ করেছেন।’

সংশ্লিষ্ট আদালত সূত্রে জানা যায়, ২০১৭ সালের ৬ অক্টোবর সকালে চট্টগ্রাম নগরীর দক্ষিণ নালাপাড়ার বাসা থেকে ডেকে নিয়ে পিটিয়ে খুন করা হয় চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক সুদীপ্ত বিশ্বাসকে। এ ঘটনায় সুদীপ্তর বাবা মেঘনাথ বিশ্বাস বাদি হয়ে অজ্ঞাত পরিচয় সাত-আটজনকে আসামি করে মামলা করেন।

পরে আদালতের নির্দেশে ২০১৯ সালের ফেব্রুয়ারিতে মামলাটি তদন্তের জন্য পিবিআই-এর কাছে হস্তান্তর করা হয়। চলতি বছরের ১ ফেব্রুয়ারি সুদীপ্ত হত্যা মামলায় ২৪ জনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেন পিবিআই পরিদর্শক সন্তোষ কুমার চাকমা।

Din Mohammed Convention Hall

মামলার অন্যতম আসামি দিদারুল আলম মাসুম, নিয়াজ মোর্শেদ নিপু, মোক্তার হোসেন ও মাইনুল কাদেরকে ঘটনার মূল পরিকল্পনাকারী বলে জানায় পিবিআই। এ মামলায় ১৮ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এ মধ্যে চারজন আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছেন। এ ছাড়া ৮১ জনের সাক্ষী গ্রহণ করেছে পিবিআই। এ ২৪ জনের মধ্যে আসামি ছিলেন মো. নিয়াজ মোর্শেদ।

আসামি পক্ষের আইনজীবী বাবুল দাশ মুঠোফোনে চট্টগ্রাম প্রতিদিনকে জানান, ‘নিয়াজ মোর্শেদ নিজে এসে আদালতে আত্মসমর্পণ করলেন। জান বাঁচানো ত আগে। ক্রসফায়ারে মেরে ফেলা এদেশে নতুন কিছু না। তাই জেলেই থাকুক। আদালতেই বিচার হবে আমার মক্কেল অপরাধী না নিরপরাধ।’

তিনি আরও বলেন, ‘ছাত্রলীগ নেতা সুদীপ্ত হত্যা মামলার সন্দেহভাজন চার্জশিটভুক্ত ২২ নম্বর আসামি মো. নিয়াজ মোর্শেদ। আমি তার হয়ে আদালতে লড়ছি। আজ আদালতে আত্মসমর্পণের মধ্য দিয়ে প্রমাণ হল আমার মক্কেল নিয়াজ মোর্শেদ আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। আদালতে আত্মসমর্পণের পর নিয়াজ মোর্শেদকে কারগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন আদালত।’

আইএমই/কেএস

ManaratResponsive

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm