কোতোয়ালীতে ২ কিশোর ছিনতাইকারীসহ গ্রেপ্তার ৩

0

নগরের কোতোয়ালী থানার নিউমার্কেট এলাকা থেকে দুই কিশোর ছিনতাইকারী ও এক চোরাই মোবাইল ক্রেতাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

শনিবার (৮ সেপ্টেম্বর) দিবাগত রাত ২ টার দিকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। এ সময় তাদের কাছ থেকে একটি ছুরি ও ৩টি চোরাই মোবাইল উদ্ধার করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃত তিনজন হলেন কিশোর ছিনতাইকারী জয় বড়ুয়া (১৮), মো. রবিউল লাবু (১৮) ও চোরাই মোবাইল ক্রেতা মো. রফিক (২৩)।

পুলিশ জানিয়েছে, তিনজনই ছিনতাইকারী চক্রের সদস্য। তারা ব্যস্ত সড়কে মানুষের গা ঘেঁষে দাঁড়িয়ে থাকে পরে কোমরে অস্ত্র ঠেকিয়ে ছিনতাই করে। এদের একাধিকবার গ্রেপ্তার করে জেলে পাঠানো হলেও জামিনে বেরিয়ে তারা আবার একই কাজে জড়িয়ে পড়ে।

ওসি মোহাম্মদ মহসীন জানান, শনিবার রাতে মোটরসাইকেলে করে প্রবাল রক্ষিত নামে এক ব্যক্তি স্টেশন রোড অতিক্রমের সময় যানজটে আটকা পড়েন। এ সময় জয় ও রবিউল গিয়ে দুইপাশ থেকে তার গা ঘেঁষে দাঁড়ায়। এরপর লোকজনের দৃষ্টি এড়িয়ে প্রবালের কোমরে ছোরা ঠেকিয়ে তার মোবাইল কেড়ে নেয়। দুজন চলে যাবার সময় প্রবাল চিৎকার দিলে জনতা তাদের ধরে ফেলে। খবর পেয়ে টহল পুলিশ গিয়ে তাদের আটক করে।

ওসি বলেন, ‘জয় ও রবিউলের কাছে মোবাইল ফোনটি না পেয়ে তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে, তারা সেটি রফিককে দিয়েছে বলে জানায়। মোবাইল ফোনটি ছিনতাইয়ের পর মুহূর্তের মধ্যেই তারা রফিককে সেটি হস্তান্তর করে। স্টেশন রোডের ফুটপাতে রফিক মোবাইলসহ বিভিন্ন ইলেকট্রনিক্স সামগ্রী বিক্রি করে, যার অধিকাংশই চুরি-ছিনতাই করে আনা। আমরা দ্রুত রফিককে গ্রেফতার করে মোবাইলটি উদ্ধার করি।’

ওসি মহসীন আরও বলেন, ‘স্টেশন রোড এলাকায় কিশোর-তরুণদের প্রায় ২০ জনের একটি গ্রুপ আছে। তারা ট্রাফিক সিগন্যালের মধ্যে কিংবা যানজটে আটকে থাকা মোটরসাইকেল-রিকশা টার্গেট করে। ব্যস্ত সড়কে এমনভাবে তারা মোবাইলে ছিনতাই করে যে পাশে থাকা কারও বোঝা সম্ভব নয়। ৩জনকেই আমরা আগেও গ্রেপ্তার করেছিলাম। কিন্তু জেল থেকে বেরিয়ে তারা ফের একই অপরাধে জড়িয়ে পড়ে।’

তিনজনের বিরুদ্ধে প্রবাল রক্ষিত বাদি হয়ে কোতোয়ালী থানায় মামলা দায়ের করেছেন বলে জানান ওসি।

এইচটি/এসএস

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন