কুকিং মেশিনে লুকানো ছিল দেড় কোটি টাকার স্বর্ণ

শারজাহ থেকে আসা এক যাত্রী কুকিং মেশিনের ভেতরে করে আনা আড়াই কেজি স্বর্ণসহ ধরা পড়েছে চট্টগ্রাম বিমানবন্দরে। যার বাজার মূল্য ১ কোটি ৬৪ লাখ টাকা।

আটক যাত্রীর নাম মো. জসীম উদ্দিন। তিনি রাঙ্গুনিয়ার উপজেলার বাসিন্দা।

বুধবার (২৮ ডিসেম্বর) জাতীয় গোয়েন্দা সংস্থা (এনএসআই) ও কাস্টমস তদন্ত অধিদপ্তর তাকে আটক করে।

কাস্টমস তদন্ত অধিদপ্তর জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে চট্টগ্রামের এনএসআই ও কাস্টমস তদন্ত অধিদপ্তর শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবস্থান করে। শারজাহ থেকে আসা এয়ার এ্যাবিয়ার ফ্লাইট নম্বর এ৯-৫২৬ সকালে সাড়ে ৯ টায় চট্টগ্রাম বিমানবন্দরে অবতরণের পর যাত্রী মো. জসীম উদ্দিনকে নজরদারি করা হয়।

কাস্টমস গ্রিন চ্যানেল পার হওয়ার পর তার কাছে অবৈধ কোনো পণ্য আছে কি-না জিজ্ঞাসা করলে তিনি অস্বীকার করেন। এরপর তার সঙ্গে থাকা কুকিং মেশিন ভেঙে বিশেষ কায়দায় লুকিয়ে রাখঅ ২ হাজার ৯০ গ্রাম স্বর্ণ পাওয়া যায়। এছাড়াও ২টি স্বর্ণবার, ১০০ গ্রাম স্বর্ণালঙ্কার জব্দ করা হয়।

জব্দ করা স্বর্ণের ওজন ২ কেজি ৪২৩ গ্রাম। যার আনুমানিক বাজর মূল্য ১ কোটি ৬৪ লাখ টাকা।

Yakub Group

জব্দ পণ্য চট্টগ্রাম কাস্টম হাউসের গুদামে জমা দেওয়া হয়েছে। এ বিষয়ে ফৌজদারি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

চট্টগ্রামের কাস্টমস গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক মো. বশীর আহমেদ বলেন, ‘ওই যাত্রী স্বর্ণ চোরাচালানে জড়িত থাকায় তাকে ফৌজদারি মামলার মাধ্যমে পতেঙ্গা থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে। তার কাছে থাকা সকল স্বর্ণ জব্দ করা হয়েছে। এ চোরাকারবারের পেছনে আর কারো হাত আছে কি-না তা খতিয়ে দেখা হবে।’

এএস/ডিজে

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

ksrm