কিশোর অপরাধে পরিবারেরও দায় আছে, উপহার বিতরণীতে আ জ ম নাছির

পবিত্র রমজান উপলক্ষে ‘জাহানারা মালেক ফাউন্ডেশন’র উদ্যোগে সুবিধাবঞ্চিত মানুষের মাঝে ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে।

রোববার (৯ এপ্রিল) সকালে মুরাদপুরের একটি কমিউনিটি সেন্টারে জাহানারা-মালেক ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে সুবিধাবঞ্চিত ৩০০ মানুষের মাঝে ঈদ উপহারসামগ্রী বিতরণ করা হয়।

এতে প্রধান অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন।

আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেন, ‘কিশোর অপরাধী সৃষ্টির নেপথ্যে পরিবারেরও দায় রয়েছে। প্রত্যেক পরিবারে পিতা-মাতার উচিত নিজের কিশোর বয়সী সন্তানের সার্বক্ষণিক খোঁজ-খবর রাখা। বয়ঃসন্ধিকালে কিশোর সন্তানরা কোথায় যায়? কার সঙ্গে মেলামেশা করে? তার বন্ধু-বান্ধবরা কেমন স্বভাবের? এসব খবর রাখতেই হবে।’

তিনি বলেন, ‘কিশোর বয়সীদের স্বাভাবিকভাবে সন্ধ্যার পর বাড়ির বাইরে থাকার কথা নয়। সন্ধ্যার পর সে পড়ালেখায় থাকার কথা। অথবা পড়ালেখায় না থাকলে পরিবারের অন্য সদস্যদের সঙ্গে ঘরেই সময় কাটানোর কথা। পারিবারিক অস্বচ্ছলতার কারণে নিম্নজীবী পরিবারের কিশোর সন্তানরা বিভিন্ন কাজেকর্মে ব্যস্ত থাকার কথা। কিন্তু কোনো কাজে জড়িত না থেকেও যদি কিশোর সন্তানেরা রাতে ঘর ছেড়ে বাইরে ঘুরে বেড়ায় তাহলে বিষয়টি চিন্তার।’

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম-৮ আসন উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগে প্রার্থী নোমান আল মাহমুদ।

জাহানারা মালেক ফাউন্ডেশনের ভাইস চেয়ারম্যান ফাহ্দ মোহাম্মদের সভাপতিত্বে ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রনেতা শেখ সাদী সাইমনের সঞ্চালনায় সভায় আরো বক্তব্য রাখেন নগর আওয়ামী লীগের কৃষি বিষয়ক সম্পাদক আহমেদুর রহমান সিদ্দিকী, ৮ নম্বর শুলকবহর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি আতিকুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক শেখ সরওয়ার্দী, পাঁচলাইশ থানা আওয়ামী লীগ নেতা আবুল হাশেম।

আরও উপস্থিত ছিলেন শাহজাহান সুফী, আক্তার ফারুক, নজরুল ইসলাম, এরশাদ উল্লাহ মুন্না, মোহাম্মদ সায়েম, শম্ভু দাশ, সাহেদ মুরাদ,আবদুল হাকিম, ছাবের আহমদ, মো. জাহেদ, জানে আলম লেদু, আবছার জাবেদ।

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!