s alam cement
আক্রান্ত
১০২৩১৪
সুস্থ
৮৬৮৫৬
মৃত্যু
১৩২৮

কারাগারে কেটেছে বঙ্গবন্ধুর ৮ জন্মদিন

0

জীবদ্দশায় জন্মদিন উপভোগের খুব একটা সুযোগ পাননি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। সোনার বাংলা গড়ার স্বপ্ন বয়ে বেড়ানো সর্বকালের সেরা এই বাঙালির বেশিরভাগ জন্মদিন কেটেছিল কারাগারে। পাকিস্তানবিরোধী আন্দোলনে নেতৃত্ব দিতে গিয়ে বঙ্গবন্ধুকে প্রায় ১৩ বছরের মতো কারাগারে কাটাতে হয়। তিনি মোট ৪ হাজার ৬৮২ দিন জেলে কাটিয়েছেন।

বঙ্গবন্ধুকে সর্বপ্রথম ১৯৫০ সালে তার ৩১তম জন্মদিনে কাটাতে হয় কারাগারে। পাকিস্তান সরকার তাকে ১৯৫০ সালের ১ জানুয়ারি বন্দি করে। টানা ৭৮৭ দিন কারাগারে কাটিয়ে তিনি মুক্তি পান ১৯৫২ সালে। ওই একই দফায় বন্দিদশায় ১৯৫১ সালে তার ৩২তম জন্মদিনও কাটে জেলে। এরপর আইয়ুব খান সামরিক শাসন জারি করলে ১৯৫৮ সালের ১১ অক্টোবর গ্রেফতার হয়ে টানা ১ হাজার ১৫৩ দিন বঙ্গবন্ধুকে কারাগারে কাটাতে হয়। গ্রেফতারের ১৪ মাসের মাথায় তিনি মুক্তি পেলেও সেদিনই কারা ফটকে তিনি আবার গ্রেফতার হন। এ সময় তার ৪০তম (১৯৫৯ সাল), ৪১তম (১৯৬০) ও ৪২তম (১৯৬১) জন্মদিন কাটে পাকিস্তান সরকারের হাতে বন্দিদশায়।

ওই দফায় ১৯৬১ সালে মুক্তি পাওয়ার কয়েক মাসের মাথায় ১৯৬২ সালের ৬ জানুয়ারি তিনি আবার গ্রেফতার হন এবং মুক্তি পান একই বছরের ১৮ জুন। এ কারণে ৪৩তম (১৯৬২) জন্মদিনও তাকে জেলে কাটাতে হয়। এরপর ১৯৬৭ সালে ৪৮তম এবং ১৯৬৮ সালে ৪৯তম জন্মদিনও জেলখানায় কাটে বঙ্গবন্ধুর।

‘বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনী’ গ্রন্থেও জাতির পিতার জেলজীবনের আংশিক উঠে এসেছে। এসব তথ্য পর্যালোচনা করে দেখা গেছে, ৫৫ বছরের জীবনে অন্তত আটটি জন্মদিন কারাগারে পালন করতে হয়েছে তাকে। তবে জেলে থাকাকালে তার জন্মদিনগুলো কীভাবে কেটেছে তা বিস্তারিত জানা যায়নি।

ManaratResponsive

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm