আক্রান্ত
১৮৮০৫
সুস্থ
১৫২১৮
মৃত্যু
২৯২

কর্মীদের বেতন না দিয়েই সিটি কর্পোরেশন ছাড়লেন মেয়র নাছির

0

কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতন না দিয়েই চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন (চসিক) ছাড়লেন মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন। অথচ অনেক বছর ধরে প্রতিমাসের ১ তারিখ বেতন-ভাতা পেয়ে আসছেন চসিকের সাড়ে ৯ হাজার কর্মী। তবে এবারই এই ধারাবাহিকতায় ছন্দপতন ঘটেছে।

চসিকের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা জানান, কোরবানির ঈদ উপলক্ষে মুসলিম কর্মীরা বোনাস পেয়েছেন। কিন্তু জুলাই মাসের বেতন পাননি। অথচ প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা ছিল সরকারি-বেসরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ঈদ উল আজহার বেতন ও বোনাস সঙ্গে দেওয়ার। এখানে উপেক্ষিত হয়েছে প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণাও।

এদিকে চসিকের মুসলিম কর্মীরা বোনাসে সান্ত্বনা পেলেও অন্য ধর্মের কর্মীরা তা থেকেও বঞ্চিত হয়েছেন।

চসিকে কর্মরত একজন কর্মকর্তা বলেন, চসিকে দেড় হাজার হিন্দু কর্মী রয়েছে। এছাড়া অন্যান্য ধর্মাবলম্বী রয়েছে আরও ৫০০ জন। বেতনগুলো ঠিকসময়ে পেলে বাসা ভাড়া ও দোকানদারের পাওনা পরিশোধ করা যেত। মেয়র চলে যাচ্ছেন, কিন্তু আমাদের বেতন দেওয়ার কথা চিন্তাও করলেন না।

সূত্র জানায়, চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের সাড়ে ৯ হাজার কর্মীর জন্য ১৮ কোটি টাকা বেতন দিতে হয়। তবে জুলাই মাসের বেতনে আরও ১০ শতাংশ যোগ হবে। ফলে বেতন আসবে প্রায় ১৯ কোটি ৮০ লাখ টাকা। কিন্তু আগস্টের ৫ তারিখ পেরিয়ে গেলেও এখনও বেতনের খবর নেই।

চসিকের হিসাব বিভাগ থেকে জানা গেছে, আগামী রোববারের (৯ আগস্ট) দিকে এসব কর্মীরা জুলাই মাসের মাসের বেতন পেতে পারেন।

প্রসঙ্গত, বুধবার ৫ আগস্ট থিয়েটার হলে অনুষ্ঠিত হয় মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীনের বিদায়ী অনুষ্ঠান। বৃহস্পতিবার (৬ আগস্ট) থেকে চসিকের প্রশাসকের দায়িত্ব পালন করবেন নগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি খোরশেদ আলম সুজন।

মেয়র নাছির যোগদানের সময় প্রায় ২৫০ কোটি টাকা দেনা ভার নিয়ে দায়িত্বগ্রহণ করলেও দায়িত্ব ছাড়ার সময় ৮১৪ কোটি টাকা দেনার ভার রেখেই যাচ্ছেন। এছাড়া বিদায়বেলায় চসিকে নিচের পছন্দের বেশ কয়েকজন কর্মকর্তা-কর্মচারীকে জ্যেষ্ঠতা ডিঙ্গিয়ে প্রমোশন দিয়ে বেশ সমালোচিত হন তিনি।

নগর ভবনের কয়েকজন কর্মকর্তা আক্ষেপ করে বলেন, ঈদ উল আজহার বোনাস পেলেও নতুন অর্থবছরের প্রথম (জুলাই) মাসের বেতন পাননি কেউই। অথচ গত অনেক বছর ধরে প্রতিমাসের ১ তারিখে চসিক কর্মীদের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে বেতন ঢুকে যেত।

তবে চসিকের অতিরিক্ত প্রধান হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা হুমায়ুন কবীর চৌধুরী চট্টগ্রাম প্রতিদিনকে বলেন, কয়েকদিনের মধ্যেই বেতন পেয়ে যাবে কর্মীরা।

এএস/এএইচ/সিপি

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

ManaratResponsive

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন
ksrm