আক্রান্ত
১৮৪৫৪
সুস্থ
১৪৮০৫
মৃত্যু
২৮৬

কর্মচারীর লাশ ঝুলছিল চকরিয়ায় শ্রমিক ইউনিয়ন অফিসে

0

ফাঁসির দড়িতে ঝুলন্ত অবস্থায় চকরিয়ায় মিন্টু কুমার বড়ুয়া (৪৫) নামের এক ব্যক্তির লাশ উদ্ধার হয়েছে। মঙ্গলবার (৪ আগস্ট) বেলা সাড়ে ৩টার দিকে চকরিয়া পৌর বাস টার্মিনাল এলাকার লামা-আলিকদম শ্রমিক ইউনিয়নের অফিস থেকে ওই লাশ উদ্ধার করা হয়। মিন্টু ওই অফিসের হিসাব রক্ষক ছিলেন। সেখানে একাই বাস করতেন তিনি।

নিহত মিন্টু কুমার বড়ুয়া কুমিল্লা জেলার লাকসাম থানার রুহুনী কুমারের ছেলে। তিনি দীর্ঘদিন চকরিয়ার লামা-আলিকদম শ্রমিক ইউনিয়নের অফিসে হিসাব রক্ষক হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

চকরিয়া থানার এসআই মিজান বলেন, ‘ঘটনাস্থল থেকে ঝুলন্ত অবস্থায় লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে এটা একটা আত্মহত্যা বলে মনে হয়েছে। কারণ যে অফিস রুমে আত্মহত্যা করেছে, সে রুমটি ভেতর থেকে বন্ধ ছিলো। বাইরে থেকে কোন লোক ঢোকার সুযোগ ছিলো না।’

তিনি আরো বলেন, ‘লাশ উদ্ধার করে থানায় আনা হয়েছে। লাশের গলায় দড়ির দাগ রয়েছে। এছাড়া আর কোথাও দাগ পাওয়া যায়নি।’

লামা-আলিকদম শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি রফিকুল ইমলাম বলেন, মিন্টু দীর্ঘদিন ধরে আমাদের অফিসে হিসাবরক্ষক হিসেবে দায়িত্বরত ছিলো। খুব ভালো মানুষ ছিলো। কারো সাথে কখনও ঝগড়া-বিবাদ করতে দেখিনি।

তিনি আরও বলেন, সে অফিসে একা থাকতো। তার পরিবার কুমিল্লার লাকসামে থাকে। তার স্ত্রী, দুই মেয়ে রয়েছে। এক মেয়ের বিয়েও হয়েছে। আত্মহত্যার সময় অফিসে কেউ ছিলো না। এই সুযোগে সে আত্মহত্যা করে। কি কারণে আত্মহত্যা করেছে বুঝতে পারছি না।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে চকরিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো.হাবিবুর রহমান বলেন, ‘এ ঘটনায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হবে। পরিবারের অভিযোগ করলে লাশের ময়নাতদন্ত করা হবে ও সে অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

এসএস

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

ManaratResponsive

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন
ksrm