আক্রান্ত
১০৪৭৭
সুস্থ
১২৬৫
মৃত্যু
১৯৮

কর্ণফুলীতে বসতভিটা বিবাদে হামলায় নারীসহ আহত ৪

0
high flow nasal cannula – mobile

বসতভিটার শুধু ৫ফুট ভূমি নিয়েই বিরোধ তাদের। বারবার শালিস-মিটিংয়েও থামানো যায়নি তাদের বিবাদ। নারিকেল গাছ নিয়েও মারামারির ঘটনা হয়েছে দুপক্ষের মধ্যে। সর্বশেষ একপক্ষ নিজের বসতভিটায় বাড়ি বানাতে গেলে হামলা করে বসে অপরপক্ষ এতে নারীসহ গুরুতর আহত হয়েছেন ৪জন তাদের মধ্যে একজনকে চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নেওয়া হয়েছে।

বসতভিটার ৫ফুট ভূমি নিয়ে বিরোধের জেরে চট্টগ্রামের কর্ণফুলী উপজেলার খোয়াজনগরে এ হামলার ঘটনা ঘটে। শনিবার (১৩ জুন) সকালে উপজেলার চরলক্ষ্যা ইউনিয়নের খোয়াজনগর আজিমপাড়া এলাকায় মো. মফিজ ইসলামের বাড়িতে হামলায় মো. মফিজ ইসলাম (৬০), মো. বেলাল হোসেন (৩৮), মো. ইকবাল হোসেন (৩০), জান্নাতুল ফেরদৌস (২৫) গুরুতর আহত হয়েছেন।

আহত জান্নাতুল ফেরদৌস সানজু (২৫) বলেন, ‘দীর্ঘদিন আমাদের দূর-সম্পর্কের আত্মীয় মো. হাবিব সওদাগেরর পরিবারের সাথে বাড়ির পাশে আমাদের একটি ভিটা নিয়ে বিরোধ চলছিল। ঘরের পাশে একটি নারিকেল গাছ ছিলো এটা নিয়েও অনেক ঝামেলা করেছে তারা। পরে সেটাও কেটে ফেলি। আর ভিটাতে আমরা বাড়ি নির্মাণ করতে গেলে তারা বাধা দেয় সেখানে জায়গা পাবে বলে জানিয়ে। এটা নিয়ে স্থানীয় মেম্বারকে সাথে নিয়ে বৈঠকও হয়। বৈঠকে আমাদের কাছে তারা ৫ ফুট জায়গা পাবে বলে জানায়। তখনি আমরা ৫ফুট জায়গা ছেড়ে দিয়ে বাড়ি নির্মাণের কাজ করি এবং সেদিন সকাল ১০ টায় আরো একটি বৈঠকের কথাও ছিলো। কিন্তু তারা বৈঠকের আগেই আমাদের নানা অশ্লীল গালাগালি করে। আর কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে হাবিব সওদাগের পরিবারের মো. হোসেন, মো. নয়ন, নুর মোহাম্মদসহ তার মেয়ে স্বামীসহ মিলে আমাদেরকে লাঠিসোটা নিয়ে মারধর করে। তাদের হামলায় আমার স্বামী, দেবর ও শশুরসহ আমি গুরুতরভাবে আহত হই।’

তিনি আরো জানান, ‘আমরা চিকিৎসাধীন অবস্থায় থাকায় থানায় কোনো অভিযোগ এখনো পর্যন্ত করতে পারিনি। এরমধ্যে আমার স্বামীর অবস্থা আরও খারাপের দিকে গেলে উনাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে বর্তমানে ঢাকার একটি হাসপাতালে উন্নত চিকিৎসার জন্য নিয়ে আসি। এ ঘটনার বিষয়ে উপজেলা চেয়ারম্যান ফারুক চৌধুরী সাহেবকে জানিয়েছি।’

স্থানীয় আজিমপাড়া ৫নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মোহাম্মদ জালাল উদ্দিন বলেন, ‘সামান্য একটু জায়গা নিয়ে তাদের এ বিরোধ। তিনবারের মত বৈঠকও হয়েছে। সেদিন কথাকাটাকাটির এক পর্যায়ে মারামারি ঘটনা ঘটায়। এ সময় উভয়পক্ষের লোকজন আহত হয়েছে। বর্তমানে দুপক্ষের লোকজন হাসপাতাল চিকিৎসাধীন অবস্থায়।’

এ বিষয়ে জানতে চাইলে কর্ণফুলী থানার অফিসার ইনচার্জ মো. ইসমাঈল হোসেন বলেন, ‘খোয়াজনগরে জায়গা সংক্রান্ত বিষয়ে মারামারির ঘটনায় একপক্ষ মামলা করছে। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।’

এসএস

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

Manarat

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

আরও পড়ুন
ksrm