কর্ণফুলীতে নৌকাডুবি, প্রাণ গেল যুবকের

0

চট্টগ্রাম নগরের পতেঙ্গা থানার কর্ণফুলীর ১২ নম্বর ঘাট এলাকায় একটি যাত্রীবাহী নৌকা ডুবে মারা গেছেন সৈকত বড়ুয়া (২৮) নামে এক যুবক মারা গেছেন। এ ঘটনায় কয়েকজন নিখোঁজ রয়েছেন বলে জানা গেছে।

মঙ্গলবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) সকাল পৌনে ৯টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, পতেঙ্গা বোট ক্লাবের পাশের একটি ঘাট থেকে কর্ণফুলী নদীতে যাত্রী পারাপার করত ইঞ্জিনচালিত কাঠের নৌকাটি। ১০-১৫ জন যাত্রী তোলা হয় নৌকায়। সকালে যাত্রী পারাপারের সময় ঘাটের কাছেই পাড়ের ভাঙন রোধে দেওয়া পাথরের বাঁধে ধাক্কা লেগে নৌকাটি উল্টে যায়। ডুবে যাওয়ার পর অসুস্থ হয়ে পড়া তিনজনকে উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হলে সেখানে একজনের মৃত্যু হয়।

কোস্ট গার্ডের স্টাফ অফিসার লে. কমান্ডার হাবিবুর রহমান জানান, দুর্ঘটনার খবর পেয়ে উদ্ধার টিমটি দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে গেছে। ডুবে যাওয়া নৌকাটি ভেসে উঠেছে। যাত্রীদের উদ্ধারে তল্লাশি অভিযান চলছে।

ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের কর্মকর্তা সোমেন বড়ুয়া জানান, স্থানীয় লোকজনের অভিযোগ ফাহিম আল ফারুক নামের এক যুবক ওই নৌকার যাত্রী ছিলেন। তার খোঁজ মেলেনি। তিনি গার্মেন্টস কারখানার কর্মকর্তা। তাকে উদ্ধারে ফায়ার সার্ভিসের তিনজন ডুবুরি তল্লাশি চালাচ্ছেন। কোস্টগার্ডের টিমও ঘটনাস্থলে রয়েছে।

সোমেন বড়ুয়া আরো জানান, ১২ নম্বর ঘাটের কাছেই পাড়ের ভাঙন রোধে দেওয়া পাথরের বাঁধে ধাক্কা লেগে নৌকাটি উল্টে গেছে। নৌকায় ১০-১৫ জন যাত্রী ছিল। ডুবে যাওয়ার পর অসুস্থ হয়ে পড়া তিনজনকে উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির এএসআই আলাউদ্দিন তালুকদার জানান, সকালে কর্ণফুলীর ১২ নম্বর ঘাটে নৌকাডুবির পর সৈকত বড়ুয়া নামে এক যুবককে উদ্ধার করে চমেক হাসপাতালের জরুরি বিভাগে আনলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

এসএ

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm